বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > সত্যিই কি BJP রাজ্য সভাপতির পদ ছাড়ছেন দিলীপ ঘোষ? জানুন কী বললেন তিনি
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

সত্যিই কি BJP রাজ্য সভাপতির পদ ছাড়ছেন দিলীপ ঘোষ? জানুন কী বললেন তিনি

  • জানা গিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে দল পরিচালনায় নিজের আধিপত্য বজায় রাখতে দিলীপ ঘোষ নিজের ঘনিষ্ঠদেরই শুধুমাত্র গুরুত্ব দিচ্ছেন বলে দাবি করেন অর্জুন।

বিধানসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি বৈঠকে বসে বিজেপির নেতারা টের পাচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গ কী কঠিন ঠাঁই। দল এখনো ক্ষমতায় আসেনি, তাতেই তৃণমূল স্তর থেকে শীর্ষ নেতৃত্ব পর্যন্ত গোষ্ঠীকোন্দল চরমে পৌঁছেছে। ক্ষমতার ক্ষীর খেতে এগিয়ে থাকতে চান সবাই। তারই না কি বিস্ফোরণ হয়েছে সোমবার এক বৈঠকে। 

দলের ক্ষমতাসীন দিলীপ শিবিরের বিরুদ্ধে নাম না করেই একের পর এক বাণ মেরেছেন মুকুল শিবিরের সেনানি অর্জুন সিং। তার পর না কি দলের রাজ্য সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন দিলীপ। যদিও এসব কথা স্বীকার করেননি বিজেপির কোনও নেতাই। 

জানা গিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে দল পরিচালনায় নিজের আধিপত্য বজায় রাখতে দিলীপ ঘোষ নিজের ঘনিষ্ঠদেরই শুধুমাত্র গুরুত্ব দিচ্ছেন বলে দাবি করেন অর্জুন। দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে নাম না করে দিলীপ গোষ্ঠীর তুমুল সমালোচনা করেন তিনি। এভাবে সংগঠন পরিচালনা করলে যে ২০২১-এ পশ্চিমবঙ্গ দখল যে স্বপ্নই রয়ে যাবে তা জানান তিনি। সূত্রের খবর, এর পরই ইস্তফা দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন দিলীপবাবু। 

যদিও এসব আলোচনার কথা প্রকাশ্যে কেউ স্বীকার করেননি। বিজেপির সাংগঠনিক সাধারণ সম্পাদক সুব্রত চট্টোপাধ্যায় বলেন, বিজেপিতে তৃণমূলের মতো ঝগড়া হয় না। সংবাদমাধ্যমে এসব খবর ছড়াতেই প্রতিক্রিয়া জানান দিলীপ ঘোষও। তিনি জানান, আমরা দিল্লি আসার পর থেকেই সংবাদমাধ্যমে পরিকল্পনামাফিক নানা কথা রটাচ্ছে তৃণমূল। বিজেপি কর্মীদের বিভ্রান্ত করতে এই কাজ করছে তারা। আমি কলকাতা ফিরি এর শেষ দেখে ছাড়ব। 

 

বন্ধ করুন