বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আগে তৃণমূলকে সরানো দরকার, বামেদের ইনসাফ সভাকে সমর্থন করে বললেন বিজেপি বিধায়ক
ইনসাফ সভার পথে বাম ছাত্র যুবরা। বঙ্কিম ঘোষ

আগে তৃণমূলকে সরানো দরকার, বামেদের ইনসাফ সভাকে সমর্থন করে বললেন বিজেপি বিধায়ক

  • এদিন বঙ্কিমবাবু বলেন, ‘বামেরা রাজ্যে তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়ছে। আমরা চাই বাম হোক – ডান হোক সবাই মিলে তৃণমূল কংগ্রেসটাকে ক্ষমতাচ্যূত করা হোক। এখানে যে অনৈতিকতা চলছে তাতে তৃণমূলকে না সরালে কোনও রাজনৈতিক দল তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার নিয়ে কাজ করতে পারবে না’।

ধর্মতলায় বামেদের ইনসাফ সমাবেশের সমর্থনে মুখ খুললেন বিজেপি বিধায়ক। বামেদের কর্মসূচিকে সরাসরি সমর্থন করলেন চাকদার বিজেপি বিধায়ক বঙ্কিম ঘোষ। এদিন বিধানসভা চত্বরে সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, বাম হোক – ডান হোক সবাই মিলে তৃণমূল কংগ্রেসটাকে ক্ষমতাচ্যূত করা হোক।

এদিন বঙ্কিমবাবু বলেন, ‘বামেরা রাজ্যে তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়ছে। আমরা চাই বাম হোক – ডান হোক সবাই মিলে তৃণমূল কংগ্রেসটাকে ক্ষমতাচ্যূত করা হোক। এখানে যে অনৈতিকতা চলছে তাতে তৃণমূলকে না সরালে কোনও রাজনৈতিক দল তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার নিয়ে কাজ করতে পারবে না’।

ফিরে এলেন দুই নম্বর স্থানে! বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তির থেকে কত পিছিয়ে গৌতম আদানি?

বামেদের পাশে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, ‘ওদের লড়াই ওরা করুক। ওদের লড়াই মূলত তৃণমূলের বিরুদ্ধে। আমরা নীতিগত দিক থেকে সরাসরি সমর্থন না করলেও কমন ইস্যু তো এসে যাচ্ছে অনেক ক্ষেত্রে। আমাদের লড়াই ওদের লড়াই অনেক সময় এক হয়ে যাচ্ছে। আনিসের বিষয়টা নিয়ে ওদের লড়াই ন্যায্য’।

মঙ্গলবার কলকাতার ধর্মতলায় আনিস খানের রহস্যমৃত্যুর বিচারের দাবিতে ইনসাফ সভার ডাক দিয়েছে বাম ছাত্র যুবরা। সেই কর্মসূচিতে ব্যাপক জন সমাবেশ হয়েছে। সমাবেশে রয়েছেন DYFI নেত্রী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়, নেতা সৃজন ভট্টাচার্য প্রমুখ।

বলে রাখি ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী বঙ্কিম ঘোষ।

 

বন্ধ করুন