বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌আজই রাজ্য সরকারের কাছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক রিপোর্ট তলব করছে’‌, নির্দেশ অমিতের
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (এএনআই)
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (এএনআই)

‘‌আজই রাজ্য সরকারের কাছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক রিপোর্ট তলব করছে’‌, নির্দেশ অমিতের

  • আজ, শুক্রবার কাশীপুরে যুবনেতা অর্জুন চৌরাসিয়ার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। পরিবারের দাবি, এই যুবককে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই নিয়ে শাসক–বিরোধীর তরজা তুঙ্গে উঠেছে। অর্জুন কার?‌ এই প্রশ্নে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। বিজেপি–তৃণমূল কংগ্রেস দু’‌জনেই অর্জুন চৌরাসিয়ার দাবিদার।

শুক্রবার উত্তরবঙ্গ থেকে কলকাতায় ফিরে তিনি কাশীপুরে এসে পৌঁছন। সেখানে অর্জুন চৌরাসিয়ার পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন। সিবিআই তদন্তের দাবি করেন। এমনকী তাঁর দফতর রিপোর্ট তলব করে রাজ্য সরকারের কাছ থেকে। হ্যাঁ, তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এই ঘটনায় রাজ্য–রাজনীতিতে আলোড়ন পড়ে গিয়েছে।

ঠিক কী বলেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী?‌ এদিন কাশীপুরে পৌঁছে তিনি সংবাদমাধ্যমের সামনে বলেন, ‘‌অর্জুন চৌরাসিয়ার রাজনৈতিক হত্যা হয়েছে। জঘন্য হত্যা হয়েছে। গতকাল তৃণমূল কংগ্রেসের একবছর হয়েছে। তার পরের দিনই রাজ্যে রাজনৈতিক হত্যার ঘটনা ঘটল। বিরোধী নেতাদের হত্যা করার একের পর এক উদাহরণ সামনে আসছে। আজই রাজ্য সরকারের কাছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক রিপোর্ট তলব করছে। এই ঘটনায় দোষীদের কঠোর শাস্তি সুনিশ্চিত করব। এই হত্যাকাণ্ডের সিবিআই তদন্ত হওয়া উচিত।’

উল্লেখ্য, আজ, শুক্রবার কাশীপুরে যুবনেতা অর্জুন চৌরাসিয়ার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। পরিবারের দাবি, এই যুবককে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই নিয়ে শাসক–বিরোধীর তরজা তুঙ্গে উঠেছে। অর্জুন কার?‌ এই প্রশ্নে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। বিজেপি–তৃণমূল কংগ্রেস দু’‌জনেই অর্জুন চৌরাসিয়ার দাবিদার। তারই মধ্যে এখানে এসে হাজির হন অমিত শাহ। কলকাতা হাইকোর্টে ময়নাতদন্তে স্থগিতের আর্জি জানানো হয়।

এই ঘটনা নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন অমিত শাহ। এদিন কাশীপুরে দাঁড়িয়ে বলেন, ‘‌বিজেপি এই ঘটনা নিয়ে আদালতে লড়বে। অর্জুন হত্যাকারীদের কড়া শাস্তি দেওয়া হবে। আজকে অর্জুনের দেহ ছিনতাই করে নিয়ে গিয়েছে পুলিশ। তাঁর দিদিমাকেও মেরেছে। বাম জমানায় যে হিংসা চলত বাংলায় তার চেয়েও করুণ অবস্থা তৃণমূল কংগ্রেসের জমানায়। ভারতীয় জনতা পার্টি হিংসায় বিশ্বাস করে না। কিন্তু হিংসাকে ভয়ও করে না। লড়াই চলবে।’‌

বন্ধ করুন