কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি
কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি

হুগলি জেলায় কবে চালু হবে ইন্টারনেট ও কেবল টিভি, আদালতে কী জানাল সরকার

  • গত ১২ মে থেকে জেলায় ইন্টারনেট ও কেবল টিভি বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় প্রশাসন। জানানো হয় ১৭ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট।

আগামিকাল থেকে স্বাভাবিক হবে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ কবলিত হুগলি জেলার ইন্টারনেট পরিষেবা। শনিবার হাইকোর্টে এমনই জানাল রাজ্য সরকার। যার ফলে লকডাউনের বন্দি দশায় আশার আলো দেখছে মানুষ। 

গত রবিবার থেকে চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটের অধীন ভদ্রেশ্বরের তেলেনিপাড়ায় সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ ছড়ায়। তার জেরে গত ১২ মে থেকে জেলায় ইন্টারনেট ও কেবল টিভি বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় প্রশাসন। জানানো হয় ১৭ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট। লকডাউনে বন্দিদশার মধ্যে ইন্টারনেট ও টিভি বন্ধ হয়ে যায় চন্দননগর, ভদ্রেশ্বর, সিঙুর, হরিপাল, তারকেশ্বর, শ্রীরামপুর, উত্তরপাড়া, ডানকুনি, চণ্ডীতলা-সহ হুগলি জেলার বিস্তীর্ণ এলাকায়।

কিন্তু লকডাউনের মধ্যে ইন্টারনেটকে অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা ঘোষণা করে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে মামলা করেন সৌমাভ মুখোপাধ্যায় নামে এক আইনজীবী। 

শুক্রবার সেই মামলায় রাজ্য সরকারের পক্ষ রাখতে পারেননি সরকারি আইনজীবী। শনিবার প্রধান বিচারপতি টিবি রাধাকৃষ্ণণ ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে ভিডিয়ো কনফারেন্সিং শুনানিতে তিনি জানান, তেলেনিপাড়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। রবিবার থেকে সেখানে ইন্টারনেট ও কেবল টিভি পরিষেবা চালু করার অনুমতি দেওয়া হবে। 

 

বন্ধ করুন