বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কয়েক ঘণ্টার প্রবল বর্ষণে জলমগ্ন কলকাতা
জলমগ্ন কলকাতা। (ছবি সৌজন্য এএনআই)
জলমগ্ন কলকাতা। (ছবি সৌজন্য এএনআই)

কয়েক ঘণ্টার প্রবল বর্ষণে জলমগ্ন কলকাতা

দুপুর থেকে টানা মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়। গড়ায় বিকেল পর্যন্ত। এই টানা কয়েক ঘণ্টা বৃষ্টিতেই জলের তলায় চলে যায় শহরের সমস্ত রাস্তাঘাট।

বিধ্বংসী ইয়াসের হাত থেকে রক্ষা পেলেও, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রবল বর্ষণে ভেসে গেল গোটা কলকাতা। বৃহস্পতিবার দফায় দফায় অতি ভারী বৃষ্টির দাপটে জলমগ্ন হয়ে পড়ল তিলত্তমা।আলিপুর হাওয়া অফিস আগেই পূর্বাভাস দিয়েছিল যে, এদিন ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। সঙ্গে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়াও বইবে।

এদিন সকাল থেকেই মুখ গোমড়া ছিল আকাশের। দিনের শুরুতে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাত হচ্ছিল। কিন্তু বেলা বাড়ার সঙ্গেই তা রুদ্রমূর্তি ধারণ করে। দুপুর থেকে টানা মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়। গড়ায় বিকেল পর্যন্ত। এই টানা কয়েক ঘণ্টা বৃষ্টিতেই জলের তলায় চলে যায় শহরের সমস্ত রাস্তাঘাট। বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে কোথাও হাঁটু পর্যন্ত তো কোথাও এক কোমর জল জমে গিয়েছে।

ইয়াসের ধাক্কায় আদিগঙ্গার জলোচ্ছ্বাস বেড়ে যাওয়ায় বুধবারই ভেসে গিয়েছিল কালীঘাট, চেতলা সহ পার্শ্ববর্তী এলাকা। পরে সেই জল নেমেও যায়। কিন্তু এদিন ভরা কোটালের পাশাপাশি প্রবল বর্ষণের জেরে ফের জল জমতে শুরু করে ওই সমস্ত এলাকাগুলোয়। এদিন দুপুর ২.০৩ মিনিটে গঙ্গার জলস্তর সর্বোচ্ছ বৃদ্ধি পাওয়ায়, কালীঘাট-চেতলা-টালিগঞ্জের মতো একাধিক জনবহুল এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়ে। অন্য দিকে, শ্যামবাজার থেকে হাজরা পর্যন্ত প্রবল বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়ে। এমনকী, কলেজ স্ট্রিট থেকে শুরু করে বালিগঞ্জ জলের তলায় চলে যায়।পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, জোয়ারের জল না নামা পর্যন্ত গঙ্গার লকগেটগুলো খোলা সম্ভব নয়। সেগুলো বন্ধই থাকবে। সেকারণে জল যতক্ষণ না নামছে মানুষের চরম দুর্ভোগ কমার আপাতত কোনও লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। ফলে, বিপাকে পড়েছেন শহরবাসী।

বন্ধ করুন