বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌এটা মা–মাটি–মানুষ দিবস’‌, তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে টুইট মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  (HT_PRINT)
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  (HT_PRINT)

‘‌এটা মা–মাটি–মানুষ দিবস’‌, তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে টুইট মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

  • একুশের নির্বাচনে এসে মোদী–শাহ হুঙ্কার ছেড়েছিলেন, ‘‌অব কি বার/ ২০০ পার’, ‘তৃণমূল সরকার কো উখাড়কে ফেক দো’। সেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের স্লোগান ছিল—‘বাংলা নিজের মেয়েকে চায়’। আর বাংলার মানুষ সেই ‘মেয়েকেই’ বেছে নিয়েছেন জননেত্রী হিসাবে।

একুশের নির্বাচনে জিতে হ্যাটট্রিক করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর দল তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যে তৃতীয়বার তৃণমূল কংগ্রেস সরকার প্রতিষ্ঠার এবার প্রথম বর্ষপূর্তি। ২০২১ সালে এই দিনই রাজ্যবাসীর বিপুল জনমত নিয়ে নবান্নে ফেরেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের যাবতীয় প্রচেষ্টা উড়িয়ে দিয়ে দেশের বিরোধী মুখ হয়ে ওঠেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২ মে তাই উদযাপনের দিন। এই নিয়ে টুইট করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মা–মাটি–মানুষকে জানালেন অভিনন্দন।

ঠিক কী লিখেছেন মুখ্যমন্ত্রী?‌ আজ, সোমবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে লেখেন, ‘‌আমি এই দিনটিকে মা–মাটি–মানুষের কাছে উৎসর্গ করছি। আর এই দিনকে মা–মাটি–মানুষ দিবস বলে ঘোষণা করছি। রাজ্যের মানুষ গোটা বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছে গণতন্ত্রই আসল শক্তি। প্রকৃত জাতি গড়ে তুলতে আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ। আর তা করতে বহু লড়াই লড়েছি, জিতেছি এবং আরও লড়াই করতে হবে একসঙ্গে।’‌

আর দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক কী লেখেন?‌ গত বছর ২ মে বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণা হয়েছিল। দিনটিকে স্মরণ করে ট্যুইট করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি ট্যুইটারে লেখেন, ‘‌২০২১ সালের ২ মে সবসময় আমাদের হৃদয়ে থাকবে। এই দিনে তৃতীয়বারের জন্য মা–মাটি–মানুষের সরকারের প্রতি আস্থা রাখার জন্য বাংলার প্রতিটি মানুষকে ধন্যবাদ। সবসময় আপনাদের যথাসাধ্য সেবা করার জন্য আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’‌

উল্লেখ্য, একুশের নির্বাচনে এসে মোদী–শাহ হুঙ্কার ছেড়েছিলেন, ‘‌অব কি বার/ ২০০ পার’, ‘তৃণমূল সরকার কো উখাড়কে ফেক দো’। সেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের স্লোগান ছিল—‘বাংলা নিজের মেয়েকে চায়’। আর বাংলার মানুষ সেই ‘মেয়েকেই’ বেছে নিয়েছেন জননেত্রী হিসাবে। কঠিন ছিল একুশের নির্বাচন। যা জিতে বিজেপির রথ আটকে দেয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বন্ধ করুন