বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > খাস কলকাতায় জোড়া অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল, ভস্মীভূত একের পর এক গুদাম
আগুনের লেলিহান শিখা (নিজস্ব চিত্র )
আগুনের লেলিহান শিখা (নিজস্ব চিত্র )

খাস কলকাতায় জোড়া অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল, ভস্মীভূত একের পর এক গুদাম

  • গুদামে প্রচুর দাহ্যবস্তু মজুত ছিল বলেই দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে আগুন।

ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল খাস কলকাতায়। তাও আবার জোড়া অগ্নিকাণ্ড। একদিকে ট্যাংরায় ভস্মীভূত হয়ে গেল তিনটি গুদাম। অন্যদিকে শোভাবাজারে পুড়ে যায় একটি টালির বাড়ি। মাঝরাত ৩টে নাগাদ ট্যাংরার পিলখানা রোডে প্লাস্টিকের গুদামে আগুন লাগে। তা ছড়িয়ে পড়ে আরও দুটি গুদামে। দমকলের পাঁচটি ইঞ্জিনের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। গুদামে প্রচুর দাহ্যবস্তু মজুত ছিল বলেই দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে আগুন। তাতে কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান মালিকপক্ষ।

আর ভোর ৪টে নাগাদ আগুন লাগে শোভাবাজারের হরি বোস লেনে টালির বাড়িতে। স্থানীয়রাই প্রথমে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। সেখানে ৬টি গ্যাস সিলিন্ডার ছিল। তবে সেগুলিকে দ্রুত সরিয়ে ফেলা হয়। দমকলের দুটি ইঞ্জিন আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। দুটি ক্ষেত্রেই অগ্নিকাণ্ডের কারণ স্পষ্ট নয়। তবে দমকলের আধিকারিকরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বেলেঘাটা এলাকার ৭ নম্বর কবি সুকান্ত সরণিতে একটি পুরনো কাঠের দোতলা বাড়িতে আগুন লাগে। কয়েকদিন আগেই ১৫১ শরৎ বোস রোডে একটি বহুতলে আগুন লাগে। গত শুক্রবারই চেতলা হাটের একটি বস্তিতে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। আবার চলতি সপ্তাহেই প্যারাডাইস সিনেমা হলের কাছে ৩০ নম্বর বেন্টিঙ্ক স্ট্রিটে আগুন লাগে। আর ১ নভেম্বর খিদিরপুরের ফ্যান্সি মার্কেটের উল্টোদিকে গ্রিন প্লাজা মার্কেটে ভয়াবহ আগুন লাগে।

এই পর পর অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আতঙ্ক তৈরি হয়েছে শহরে। এখনও সেভাবে শীত পড়েনি। তবে পারদ নীচের দিকে নামছে। এই অবস্থায় শহরের নানা জায়গায় আগুন লাগার ঘটনা ঘটছে। প্রতিটি ক্ষেত্রে বেশ বড় আকার ধারণ করছে। দমকল সূত্রে খবর, কী থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা পর পর ঘটেছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

বন্ধ করুন