বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Assembly: ‘‌বনমন্ত্রীর জন্মদিনে কি বাংলার কোনও জঙ্গলে চিতা ছাড়া হবে?’ প্রশ্ন তাপসের
তাপস রায়।

Assembly: ‘‌বনমন্ত্রীর জন্মদিনে কি বাংলার কোনও জঙ্গলে চিতা ছাড়া হবে?’ প্রশ্ন তাপসের

  • কয়েকদিন আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর জন্মদিনে মধ্যপ্রদেশের কুনো অভয়ারণ্যে ৮টি চিতা ছেড়েছেন। ভারতে চিতা লুপ্তপ্রায়। তাই নামিবিয়া থেকে চিতাগুলিকে আনা হয়। আর তার পর প্রধানমন্ত্রী নিজে গিয়ে কুনো জঙ্গলে সেই চিতাগুলি ছেড়েছেন।

দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্মদিনে নামিবিয়া থেকে চিতা এনে জঙ্গলে ছাড়া হয়েছিল। সেটা দেখেছেন দেশের মানুষ। এবার সেই ঘটনা নিয়ে মজা করা হল রাজ্য বিধানসভায়। রাজ্যের বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তবে এই নেতার ডাক নাম বালু। অন্যান্য মন্ত্রী তথা বিধায়করা এই নামেই তাঁকে ডাকেন। আজ, বুধবার বিধানসভা অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে বনমন্ত্রীর উত্তর দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেখানেই ভেসে আসে এক মজার প্রশ্ন।

ঠিক কী ঘটেছে বিধানসভায়?‌ বিধানসভায় তৃণমূল কংগ্রেসের উপ–মুখ্যসচেতক তাপস রায়। সম্প্রতি তাঁর দু’‌একটি মন্তব্য রাজ্য–রাজনীতিতে শোরগোল ফেলে দিয়েছিল। রাজনীতিবিদদের অবসরের বয়স থেকে ছাত্রনেতাদের আচরণ নিয়ে তিনি প্রশ্ন তুলে দিয়েছিলেন। এদিন অধিবেশন শুরু হতেই বরাহনগরের বিধায়ক তাপস রায় বনমন্ত্রীর উদ্দেশে প্রশ্ন করেন। তিনি বলেন, ‘‌বনমন্ত্রীর কাছে আমার একটা প্রশ্ন রয়েছে। তা হল, আপনার জন্মদিনে কি পশ্চিমবঙ্গের কোনও জঙ্গলে চিতা ছাড়া হবে?’‌ এই প্রশ্ন শুনেই জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক হো হো করে হেসে ওঠেন। বাকি সদস্যদের মধ্যেও হাসির রোল ওঠে।’‌

কেন এমন প্রশ্ন করলেন তাপস?‌ কয়েকদিন আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর জন্মদিনে মধ্যপ্রদেশের কুনো অভয়ারণ্যে ৮টি চিতা ছেড়েছেন। ভারতে চিতা লুপ্তপ্রায়। তাই নামিবিয়া থেকে চিতাগুলিকে আনা হয়। আর তার পর প্রধানমন্ত্রী নিজে গিয়ে কুনো জঙ্গলে সেই চিতাগুলি ছেড়েছেন। এমনকী তাদের ছবি তুলেছেন। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।

তারপর কী হল বিধানসভায়?‌ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে খোঁচা দিতেই তাপস রায় এদিন বাংলার বনমন্ত্রীকে এমন প্রশ্নটি করেছিলেন বলে মনে করা হচ্ছে।কিন্তু তাপস রায়ের প্রশ্ন শুনে বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌আমি এই প্রশ্ন নিয়ে আলোচনার অনুমতি দিচ্ছি না। এর উত্তরও দিতে হবে না বনমন্ত্রীকে।’‌

বন্ধ করুন