বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Partha Chatterjee Slams Suvendu Adhikari: ‘কালো টাকা নেন শুভেন্দু’, অভিযোগ, পালটা অভিযোগে সরগরম রাজ্য বিধানসভা
রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (পিটিআই) (HT_PRINT)

Partha Chatterjee Slams Suvendu Adhikari: ‘কালো টাকা নেন শুভেন্দু’, অভিযোগ, পালটা অভিযোগে সরগরম রাজ্য বিধানসভা

  • Partha Chatterjee Slams Suvendu Adhikari: মঙ্গলবার শুভেন্দু বিধানসভায় বলেছিলেন, ‘পার্থ চট্টোপাধ্যায় শিক্ষামন্ত্রী থাকাকালীন আমি শিক্ষা দফতরে চিঠি দিয়ে কোনও চাকরির সুপারিশ করিনি। কারোর বদলি কিংবা নিজের বিধানসভা কেন্দ্রের জন্য কোনও কিছুর আবেদনও জানাইনি। এর কোনও প্রমাণ এই সরকার দিতে পারবে না।’

মঙ্গলবার শুভেন্দু অধীকারীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ শানালেন শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বিধানসভায় বিরোধী দলনেতাকে আক্রমণ করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছিলেন, ‘সরকারের মন্ত্রী থাকাকালীন শুভেন্দু মেদিনীপুর, মুর্শিদাবাদ, উত্তর দিনাজপুর জেলায় চাকরি দিয়েছেন।’ পাশাপাশি মমতা আরও অভিযোগ করেন, শুভেন্দু চাকরি দেওয়া ছাড়াও অনেক সুযোগ-সুবিধা নিয়েছিলেন শিক্ষা দফতর থেকে। যদিও মুখ্যমন্ত্রীর এই দাবি উড়িয়ে দিয়ে শুভেন্দু বলেন, ‘পার্থ চট্টোপাধ্যায় শিক্ষামন্ত্রী থাকাকালীন আমি আমার বিধানসভা কেন্দ্রের জন্য একটি ব্ল্যাক বোর্ডও নিইনি।’ আর শুভেন্দুর এই দাবির প্রেক্ষিতেই পার্থবাবু পালটা আক্রমণ শানান শুভেন্দুকে। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পার্থবাবু দাবি করেন, শুভেন্দু ব্ল্যাক বোর্ড নেননি, বরং ‘ব্ল্যাক মানি’ নিয়েছেন।

মঙ্গলবার শুভেন্দু বিধানসভায় বলেছিলেন, ‘পার্থ চট্টোপাধ্যায় শিক্ষামন্ত্রী থাকাকালীন আমি শিক্ষা দফতরে চিঠি দিয়ে কোনও চাকরির সুপারিশ করিনি। কারোর বদলি কিংবা নিজের বিধানসভা কেন্দ্রের জন্য কোনও কিছুর আবেদনও জানাইনি। এর কোনও প্রমাণ এই সরকার দিতে পারবে না।’ শুভেন্দুর আরও দাবি, ‘নন্দীগ্রামের মানুষের সঙ্গে থেকে আমি আন্দোলন করেছিলাম বলেই আজ মুখ্যমন্ত্রী হতে পেরেছেন মাননীয়া।’

এদিকে বিধানসভায় দাঁড়িয়েই শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় শুভেন্দুর এই বক্তব্যের জবাব দেন। তিনি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের না থাকলে সিঙ্গুর ও নন্দীগ্রাম হত না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন বলেই অধিকারীরা অধিকারী হয়েছেন। এটা যেন বিরোধী দলনেতা মনে রাখেন।’ পাশাপাশি শিক্ষা দফতর থেকে কিছু না চাওয়া প্রসঙ্গে পার্থবাবু কটাক্ষ করে বলেন, ‘উনি আসলে জোগানদার অধিকারী।’ পরে সাংবাদিকরা শুভেন্দুর বক্তব্য প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া চাইলে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘শুভেন্দু অধিকারী ব্ল্যাক বোর্ড নেননি, নিয়েছেন কালো টাকা।’

বন্ধ করুন