বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হকার সমস্যা মিটিয়ে শেষমেষ শুরু কালীঘাট স্কাইওয়াকের নির্মাণকাজ, কাজ শেষ কবে?
হকার সমস্যা মিটিয়ে শেষমেষ শুরু কালীঘাট স্কাইওয়াকের নির্মাণকাজ। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
হকার সমস্যা মিটিয়ে শেষমেষ শুরু কালীঘাট স্কাইওয়াকের নির্মাণকাজ। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

হকার সমস্যা মিটিয়ে শেষমেষ শুরু কালীঘাট স্কাইওয়াকের নির্মাণকাজ, কাজ শেষ কবে?

  • কলকাতা পুলিশের তরফে কালীঘাট এলাকার মোট সাড়ে ৩০০ হকারের তালিকা পুরনিগমকে দেওয়া হয়েছিল। তবে আপাতত ১৮৪ জন হকারকে পুনর্বাসন দেওয়া হয়েছে।

২০১৮ সালে প্রথমবার কালীঘাট স্কাইওয়াকের কথা উঠেছিল। এর মাঝে দক্ষিণেশ্বরের স্কাইওয়াক ‘পুরোনো’ হয়ে গেল। তবে কালীঘাটে স্কাইওয়াকের কাজ শুরু হল না। তবে জানা গিয়েছে, শেষ পর্যন্ত হকার সমস্যা মিটিয়ে কাজ শুরু হতে চলেছে কালীঘাট স্কাইওয়াকের। মোট ৮০ কোটি টাকা খরচে এই স্কাইওয়াক তৈরি হবে বলে জানা গিয়েছে।

জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাড়ায় তৈরি হতে চলা এই প্রকল্পের জটিলতা কাটাতে সেখানকার ১৮৪ জন হকারকে পুনর্বাসন দেওয়া হয়েছে। তবে এই হকারদের পুনর্বাসন দিতে গিয়ে কলকাতা পুর কর্তৃপক্ষকে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে। হকারদের পুনর্বাসনের সমস্যা মেটানোর জন্য পৃথক কমিটিও গঠিত হয়েছিল। তবে তাতেও সমাধান সূত্র বের হয়নি। শেষ পর্যন্ত ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে হাজরা পার্কের হকার্স কর্নারে স্থানান্তরিত করা হয় হকারদের। এই সমস্যা মেটার পর এবার তাই স্কাইওয়াকের কাজ শুরু হবে।

জানা গিয়েছে, প্রস্তাবিত স্কাইওয়াকটি লম্বায় ৫০০ মিটার এবং চওড়ায় ১০.৫ মিটার হবে। স্কাইওয়াকে থাকবে ৪টি এসকালেটর। এই স্কাইওয়াক নির্মাণের দায়িত্বে থাকবে রাজ্য সরকার। সাহায্য করবে কলকাতা পুরনিগম। ২০২৩ সালের মে মাসের মধ্যে এই স্কাইওয়াক নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করার লক্ষ্য স্থির করা হয়েছে। যদিও হকার সমস্যা এখনও পুরোপুরি মেটেনি। জানা গিয়েছে, কালীঘাট থানা সাড়ে ৩০০ হকারের নামের তালিকা তুলে দিয়েছিল পুরনিগংর হাতে। তবে এত সংখ্যকক হকারের পুনর্বাসন যে সম্ভব নয়, তা জানিয়েছে পুরনিগম। এই আবহে আপাতত ১৮৪ জন হকারকে পুনর্বাসন দিয়ে স্কাইওয়াকের কাজ শুরুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন