বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পার্কস্ট্রিটে ১২ সোনার বিস্কুট-‌সহ পাচারকারীকে ধরল STF, দাম প্রায় ৬৮ লক্ষ টাকা
পার্কস্ট্রিটে ১২টি সোনার বিস্কুট-‌সহ পাচারকারীকে ধরল এসটিএফ। ছবি সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস।
পার্কস্ট্রিটে ১২টি সোনার বিস্কুট-‌সহ পাচারকারীকে ধরল এসটিএফ। ছবি সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস।

পার্কস্ট্রিটে ১২ সোনার বিস্কুট-‌সহ পাচারকারীকে ধরল STF, দাম প্রায় ৬৮ লক্ষ টাকা

  • অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির কাছ থেকে ১২টি সোনার বিস্কুট বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। যার আনুমানিক বাজার মূল্য ৬৮ লক্ষ টাকা

সোনার বিস্কুট পাচার করতে গিয়ে কলকাতা থেকে গ্রেফতার হল এক পাচারকারী। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পার্ক স্ট্রিট থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে এসটিএফ। অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির কাছ থেকে ১২টি সোনার বিস্কুট বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। যার আনুমানিক বাজারমূল্য ৬৮ লক্ষ টাকা। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্তের নাম হাফিজুল শেখ।

এদিন গোপন সূত্রে এসটিএফের আধিকারিকরা খবর পান যে, ওই এলাকায় থেকে সোনা পাচার করা হচ্ছে। সেইম‌তো পার্ক স্ট্রিটের বিভিন্ন এলাকায় নজর রাখতে শুরু করেন এসটিএফের আধিকারিকরা। এদিন এক ব্যক্তিকে দেখে তদন্তকারীদের সন্দেহ হয়। সাধারণ অফিস যাত্রীদের মতো রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল হাফিজুর। সেই সময় তার হাতে একটি ব্যাগ ছিল। তদন্তকারীরা হাফিজুলকে রাস্তাতেই আটকে দেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে গিয়ে তার কথায় অসঙ্গতি ধরা পড়ে। এরপরই তার ব্যাগে তল্লাশি চালাতে গিয়ে ১২টি সোনার বিস্কুট উদ্ধার হয়। তারপরেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে এসটিএফ। কোথা দিয়ে ওই ব্যক্তি এতগুলো সোনার বিস্কুট পেল, কিংবা কোথায় পাচার করার পরিকল্পনা করছিল ওই অভিযুক্ত, তা খতিয়ে দেখছে এসটিএফের আধিকারিকরা।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে ১১টি সোনার বিস্কুট-সহ গ্রেফতার করা হয়েছিল গোপাল সরকার নামে এক পাচারকারীকে। অভিযুক্ত‌ ওই ব্যক্তি সাইকেলে করে পাচার করছিল সোনার বিস্কুটগুলো। সেই সময় ঘোজাডাঙা সীমান্তের জওয়ানেরা রুটিন তল্লাশি চালাতে গিয়ে ওই ব্যক্তির কাছ থেকে বিপুল পরিমাণে সোনার বিস্কুট ও নগদ ১,৪০০ টাকা উদ্ধার করে। এরপর উদ্ধার হওয়া সোনার বিস্কুটগুলো শুল্ক দফতরের হাতে তুলে দেওয়া হয়। অন্যদিকে, অভিযুক্তকে বসিরহাট থানার পুলিশের হাতে তুলে দেন জওয়ানেরা। তারপরেই খাস কলকাতার বুকে এই ধরনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।

বন্ধ করুন