বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অভিষেক–রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ কলকাতায়, কয়লা কাণ্ডে ইডিকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজস্ব ছবি (HT_PRINT)

অভিষেক–রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ কলকাতায়, কয়লা কাণ্ডে ইডিকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

  • আগে কলকাতাতেও অভিষেক–রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে ইডি। তারপর রুজিরাকে দিল্লিতে তলব করা হয়। তখন রুজিরা জানিয়েছিলেন, তাঁর দুই শিশু সন্তানকে ফেলে দিল্লি গিয়ে ইডির সামনে হাজিরা দেওয়া সম্ভব নয়। এই নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলাও করেছিলেন অভিষেক।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে। কলকাতাতেই তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট (‌ইডি)‌। কয়লা–কাণ্ডে তাঁদের কলকাতাতেই জিজ্ঞাসাবাদ করার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। মঙ্গলবার ইডিকে এই নির্দেশ দিয়েছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। এখানে অভিষেকের ইচ্ছাই প্রাধান্য পেল।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ আদালত সূত্রে খবর, গত বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষ থেকে আইনজীবী কপিল সিব্বাল আবেদন করছিলেন, ইডি কেন তাঁদের কলকাতায় জিজ্ঞাসাবাদ করছে না?‌ এই সওয়ালের পর আদালত ইডি’‌র আইনজীবীক সামনে একই প্রশ্ন রেখেছিলেন। সেই উত্তর মিলতেই মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট ইডিকে এই নির্দেশ দিল। এই নির্দেশ দিয়েছে বিচারপতি ইউইউ ললিত, এস রবীন্দ্র ভাট এবং শুধাংশু ধুলিয়া।

ঠিক কী নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট?‌ আজ, মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট ইডি’‌র আইনজীবীকে নির্দেশ দেয়, কয়লা কাণ্ডে আর্থিক বিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কলকাতায় জেরা করতে পারবে। দিল্লিতে নয়। সেক্ষেত্রে রাজ্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনও বাধা এবং নাক গলানো বরদাস্ত করা হবে না। ২৪ ঘন্টার নোটিশ দিয়ে ডাকতে হবে। কলকাতা পুলিশ কমিশনার এবং মুখ্যসচিবকে আগাম জানাতে হবে জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়ে। তাঁরা নিরাপত্তার ব্যবস্থা করবে। এই জেরা পর্বে বাধা পেলে ইডি সরাসরি বেঞ্চকে জানাতে পারবে।

উল্লেখ্য, আগে কলকাতাতেও অভিষেক–রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে ইডি। তারপর রুজিরাকে দিল্লিতে তলব করা হয়। তখন রুজিরা জানিয়েছিলেন, তাঁর দুই শিশু সন্তানকে ফেলে দিল্লি গিয়ে ইডির সামনে হাজিরা দেওয়া সম্ভব নয়। এই নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলাও করেছিলেন অভিষেক। অভিষেকের বক্তব্য ছিল, ইডি আর্থিক নয়ছয় প্রতিরোধ আইনে বাংলার বেআইনি কয়লা পাচারের মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দিল্লিতে ডেকে পাঠাচ্ছে। হেনস্থা করার উদ্দেশ্যেই কোনও ভৌগোলিক সীমানা মানা হচ্ছে না।

বন্ধ করুন