বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'স্কুল-কলেজ খুলতে হবে', বিকাশ ভবনে ঢুকতে দেয়নি পুলিশ, রাস্তায় বসলেন শুভেন্দু
শুভেন্দু অধিকারী। (ফাইল ছবি)

'স্কুল-কলেজ খুলতে হবে', বিকাশ ভবনে ঢুকতে দেয়নি পুলিশ, রাস্তায় বসলেন শুভেন্দু

শুভেন্দুবাবু হুঙ্কার ছেড়ে বলেন, ‘‌পৃথিবীটা গোল। সিপিএমকেও দেখেছি। এবার তৃণমূলকেও দেখব।’‌

‌স্কুল খোলার দাবিতে বিকাশ ভবনের সামনে এবার বিক্ষোভে দেখালেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। শিক্ষা সচিবের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন তিনি। কিন্তু তাঁকে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। প্রতিবাদে রাস্তার বসে পড়ে অভিযোগের সুরেই তিনি জানান, ‘‌শিক্ষাতন্ত্র এখন দলতন্ত্রে পরিণত হয়েছে।’‌

এদিন সন্ধ্যায় স্কুল খোলার দাবিতে বিকাশ ভবনে শিক্ষা সচিবের সঙ্গে দেখা করতে আসেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু তাঁকে দেখা করার অনুমতি দেওয়া হয়নি। পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন শুভেন্দু। সেই সময় তাঁর সঙ্গে বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল-সহ অন্যান্য বিজেপি বিধায়করাও ছিলেন। শিক্ষা সচিবের সঙ্গে দেখা করতে না পেরে রাস্তাতেই বসে পড়েন শুভেন্দু।

এরপর রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে শুভেন্দু জানান, ‘‌পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ অন্ধকারে ঠেলে দিচ্ছে এই তৃণমূল সরকার। ২০০ জনকে নিয়ে বিয়েবাড়ি চালানোর অনুমতি দিতে পারে আর ৩০ জনকে নিয়ে স্কুল খোলার অনুমতি দিতে পারে না?‌ মদের দোকান খোলা রয়েছে কিন্তু স্কুল খুলতেই যত সমস্যা?‌ মুখ্যমন্ত্রীর পদের গরিমা নষ্ট করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।’‌ একইসঙ্গে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা জানান, কালকেই তিনি স্কুল খোলার দাবিতে এথানে অবস্থান বিক্ষোভ করতে আসবেনপ্রতিদিনই । পারলে আসবেন। তিনি না এলেও বিজেপির প্রতিনিধি আসবেন। এরপরই রাজ্য সরকারকে নিশানা করেই শুভেন্দু হুঙ্কার ছেড়ে বলেন, ‘‌পৃথিবীটা গোল। সিপিএমকেও দেখেছি। এবার তৃণমূলকেও দেখব।’‌

এদিন স্কুল খোলার দাবি কলকাতার কলেজ স্ট্রিট চত্বরে বিক্ষোভে সামিল হন ছাত্র সংগঠন এবিভিপি। পাশাপাশি রাজ্যের বিরোধী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ছাত্র সংগঠনও বিক্ষোভ দেয়। এদিন ছাত্র বিক্ষোভে উত্তাল ছিল শহর কলকাতা।

বন্ধ করুন