বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Illegal toto ban: বাসে লোক নেই তাই বেআইনি টোটো, ই-রিকশার বিরুদ্ধে ব্যবস্থার পথে পরিবহণ দফতর

Illegal toto ban: বাসে লোক নেই তাই বেআইনি টোটো, ই-রিকশার বিরুদ্ধে ব্যবস্থার পথে পরিবহণ দফতর

টোটো। ফাইল ছবি

সাধারণত বহু বেকার যুবক আয়ের জন্য টোটো, ই–রিকশাকে বেছে নিচ্ছেন। কারণ একবার ব্যাটারি চার্জ করলে এই যানে যাত্রী বহন করা সম্ভব কোনও খরচ ছাড়াই। তাই বেশি আয়ের লক্ষ্যে টোটো কিনছেন বহু মানুষ। পরিবহণ দফতরের হিসেব অনুযায়ী, রাজ্যে প্রতিদিন প্রায় ৭ লক্ষ টোটো, ই–রিকশা চলে।

রাজ্য বাড়ছে টোটো, ই–রিকশার দাপট। এরফলে যেমন যানজট বাড়ছে, তেমনি দুর্ঘটনাও বাড়ছে। আর টোটো, ই–রিকশা বাড়ার ফলে সবচেয়ে যে সমস্যাটা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে সেটি হল যাত্রী নিয়ে। কারণ স্বল্প দূরত্বের রাস্তায় যাত্রার জন্য বাসের পরিবর্তে টোটো, ই–রিকশাকেই বেছে নিচ্ছেন যাত্রীরা। যার ফলে সরকারি এবং বেসরকারি বাসগুলি ঠিকমতো যাত্রী পাচ্ছে না। অনেক ক্ষেত্রে যাত্রী না পাওয়ার ফলে বহু বাস রুট বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এই সমস্ত কারণে বেআইনি টোটো, ই–রিকশার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করতে চলেছে রাজ্য পরিবহণ দফতর। রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, বাস রুটে টোটো, ই–রিকশা চালানো যাবে না। তাছাড়া বেআইনি টোটো তৈরির কারখানা বন্ধ করতেও পদক্ষেপ করছে পরিবহণ দফতর।

আরও পড়ুন: বাস ভাড়া কি বাড়বে? আজ পরিবহণ দফতরের সঙ্গে মালিকদের বৈঠক

সাধারণত বহু বেকার যুবক আয়ের জন্য টোটো, ই–রিকশাকে বেছে নিচ্ছেন। কারণ একবার ব্যাটারি চার্জ করলে এই যানে যাত্রী বহন করা সম্ভব কোনও খরচ ছাড়াই। তাই বেশি আয়ের লক্ষ্যে টোটো কিনছেন বহু মানুষ। পরিবহণ দফতরের হিসেব অনুযায়ী, রাজ্যে প্রতিদিন প্রায় ৭ লক্ষ টোটো, ই–রিকশা চলে। ফলে রাজ্যের সর্বত্রই টোটো, ই–রিকশার রমরমা। তবে তিন চাকার ব্যাটারি চালিত টোটো, ই–রিকশা মোটর ভেহিকেল ক্যাটাগরিতে পড়ে না। সেই কারণে এই যানের উপর আরটিওর নিয়ন্ত্রণ নেই। ফলে রাজ্যের সর্বত্রই টোটো চালকদের দৌরাত্ম্য বাড়ছে। এই অবস্থায় এই সমস্ত যানগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছে রাজ্য পরিবহণ দফতর। 

পরিবহনমন্ত্রী জানিয়েছেন, বেআইনি টোটো, ই–রিকশার বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে। তাছাড়া বহু কারখানায় বেআইনিভাবে টোটো, ই–রিকশা তৈরি হচ্ছে। অথচ সেখানে নিরাপত্তা বিধি মানা হচ্ছে না। এই সমস্ত বেআইনি কারখানাগুলিকে বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বেশ কয়েকটি জেলায় ইতিমধ্যেই একাধিক টোটো, ই–রিকশা তৈরির কারখানার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে। এ বিষয়ে জনপ্রতিনিধিদের তথ্য সংগ্রহ করতে বলেছে রাজ্য পরিবহণ দফতর।

জানা গিয়েছে, কেন্দ্র সরকার টোটো, ই–রিকশার তৈরির অনুমোদন দিয়েছিল মাত্র ৯টি সংস্থাকে। ঠিক হয়েছিল তারাই টোটো, ই–রিকশা তৈরি করবে এবং যাত্রী নিরাপত্তার স্বার্থে নকশা তৈরি করবে। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে অনেক সংস্থায় বেআইনিভাবে টোটো, ই–রিকশা তৈরি করছে। ফলে পশ্চিমবঙ্গে সেই নিয়ম মানা হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে।

যদিও কবে থেকে এই নির্দেশ কার্যকর করা হবে? সে বিষয়ে পরিবহণ দফতরের তরফে কিছু জানা যায়নি। তবে বড় রাস্তায় টোটো, ই–রিকশা বন্ধ করা হলে সেক্ষেত্রে এলাকার ছোট গলি এবং রাস্তাতে টোটো, ই–রিকশা চালানোর অনুমতি দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

‘সিভিক ভলান্টিয়ার ও গ্রিন পুলিশ কী?’, সিপি-র জবাব শুনে হতবাক নির্বাচন কমিশন সমর্থকদের টিফো লাগানোর জন্য কাঠগড়ায় মোহনবাগান,অভিযোগ উঠল ফেডারেশনের নিয়ম ভঙ্গের ট্রেন হবে না,জনগর্জনের আগে মাথায় বাজ! উত্তরবঙ্গ থেকে তৃণমূলের ভাড়ার রেল বাতিল সামনে গৌরী, মেয়ে সুহানার কোমর জড়িয়ে পার্টিতে নাচলেন শাহরুখ ন্যানির কাছে নয়, সর্বক্ষণ মেয়ে রাহাকে কোলে নিয়ে ঘুরলেন, কাছ ছাড়া করলেন না রণবীর রহস্যময়ীকে আদুরে চুমু, প্রেমে ইস্তেহার প্রসেনজিৎ-পুত্রের, বুম্বাদার হবু বউমা… ঝাড়খণ্ডে স্টেজ শো করতে এসে গণধর্ষণের শিকার ছত্তিশগড়ের যুবতী, গ্রেফতার ২ রামের কথা বলে ইস্তফা দিলেন ওই রাজ্য়ের কংগ্রেস নেতা, পথ দেখাচ্ছে বাংলা! মহাশিবরাত্রিতে কীভাবে নিবেদন করবেন শিবলিঙ্গে বেলপত্র, জেনে নিন তার সঠিক বিধি ‘শুরু থেকে আপনি…’, হবু শ্বশুরমশাইকে নিয়ে আবেগঘন রাধিকা, ফাঁস করলেন বিরাট সিক্রেট

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.