পুড়ছে মধ্য কলকাতার তিনতলা ভবন। সোমবার রাতে।
পুড়ছে মধ্য কলকাতার তিনতলা ভবন। সোমবার রাতে।

মাঝরাতে মধ্য কলকাতার ভবনে আগুন, আতঙ্ক ছড়াল এলাকায়

জ্বলন্ত বাড়ির আগুন নেভানোর পাশাপাশি আগুন যাতে ছড়িয়ে না পড়ে তার জন্য আশপাশের বাড়িগুলির বাইরে ক্রমাগত জল ঢেলে ঠান্ডা রাখার ব্যবস্থা করে দমকল।

রাতের আগুনে পুড়ে গেল মধ্য কলকাতার তিনতলা বাড়ি। সোমবারের ঘটনায় কোনও হতাহতের খবর পাওয়া না গেলেও আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়।

দমকল সূত্রে খবর, বাড়ির একটি প্লাইউডের গুদামে প্রথমে আগুন লাগে। সেই আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে বাড়ির অন্য অংশেও। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের ২০টি ইঞ্জিন।

ঘটনাস্থলে পৌঁছন দমকলের শীর্ষস্থানীয় আধিকারিকরা। পৌঁছে যান রাজ্য দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু। প্রায় ৬ ঘণ্টা চেষ্টার পরে আগুন নেভাতে সফল হন দমকলকর্মীরা।

দমকলমন্ত্রী বলেন, ‘ঘটনায় কেউ আহত হননি। আশপাশের বাড়ি থেকে বাসিন্দাদের বের করে আনা হয়। ’

এ দিকে, ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় অগ্নিকাণ্ডের জেরে আতঙ্ক ছড়ায় স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে। অগ্নিকাণ্ডের উৎস সম্পর্কে নির্দিষ্ট কারণ এখনও জানা যায়নি। তবে শর্ট সার্কিটজনিত কারণে আগুন লাগতে পারে বলে মনে করছে দমকল।

দমকল জানিয়েছে, রাত ৯টা নাগাদ আগুন লাগে ওই তিনতলা বাড়িটিতে। প্রথমে দমকলের ১০টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। কিন্তু আগুন আয়ত্তে না আসায় পরে আরও ১০টি ইঞ্জিন কাজে নামে। রাত ১টা নাগাদ শেষ পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে এবং ভোর ৪টে নাগাদ তা সম্পূর্ণ নেভাতে সফল হয় দমকল।

দমকলের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, আগুন যাতে ছড়িয়ে না পড়ে তার জন্য আশপাশের বাড়িগুলির বাইরে ক্রমাগত জল ঢেলে ঠান্ডা রাখার ব্যবস্থা করে দমকল।

বন্ধ করুন