বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > সাম্প্রদায়িক শক্তিদের কোনও স্থান নেই কেরলে, ইতিহাস গড়ে বিজেপিকে বার্তা বিজয়নের
কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন (ছবি : এএনআই)
কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন (ছবি : এএনআই)

সাম্প্রদায়িক শক্তিদের কোনও স্থান নেই কেরলে, ইতিহাস গড়ে বিজেপিকে বার্তা বিজয়নের

  • সাম্প্রদায়িক শক্তিদের জন্য কেরলের জমি উর্বর নয়। নির্বাচনের জয় নিশ্চিত হতেই এদিন বিজেপিকে একহাত নিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন।

সাম্প্রদায়িক শক্তিদের জন্য কেরলের জমি উর্বর নয়। নির্বাচনের জয় নিশ্চিত হতেই এদিন বিজেপিকে একহাত নিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। উল্লেখ্য ৪ দশকের প্রথা ভেঙে কেরলে ক্ষমতা ফিরেছে বিজয়ন নেতৃত্বাধীন এলডিএফ। আর তারপরই বিজেপিকে কটাক্ষ করেন বিজয়ন। উল্লেখ্য, গত ৪০ বছরে কেরলে কোনও দল লাগাতার দুই বার সরকার গঠন করতে পারেনি। তবে সেই প্রথা ভেঙে টানা দ্বিতীয়বারের জন্য কেরলে সরকার গঠন করতে চলেছে এলডিএফ।

এই আবহে সাংবাদিকদের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন বলেন, 'আমরা প্রতিজ্ঞা করেছিলাম যে বিজেপির অ্যাকাউন্ট এরাজ্যে বন্ধ করে দেব। এবং আমরা সেটা করতে সক্ষম হয়েছি। কেরলের মতো রাজ্যে, যেখানে সামপ্রদায়িক সম্প্রীতির উপর ভিত্তি করে সমাজ চালিত হয়, সেখানে কোনও সাম্প্রদায়িক শক্তির স্থান নেই।'

এদিন কেরলে দলকে জয় এনে দেওয়ার জন্য সেরাজ্যের ভোটারদের ধন্যবাদ জানান পিনারাই বিজয়ন। উল্লেখ্য, কেরলে জমি তৈরি করতে বিজেপির তরফে এবার কেরলে আগ্রাসী প্রচার চালানো হয়েছিল। প্রধআনমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পাশাপাশি রাজ্যে একাধিকবার এসেছিলেন অমিত শাহ, যোগী আদিত্যনাথরা। কেরলে দলের ভাবমূর্তি ভালো করতে বিজেপি টিকিট দিয়েছিল মেট্রোম্যান ই শ্রীধরণকে। তবে বিজেপি খাতা খুলতে পারেনি এরাজ্যে।

এই আবহে বিজয়ন বলেন, 'একটা দল একসময়ে বলেছিল তারা নাকি রাজ্যে সরকার গঠন করবে। শীর্ষ নেতৃ্বরা এখানে এসে ভিত্তিহীন দাবি করেছিলেন। কেন্দ্রীয় সংস্থাকে কাজে লাগিয়ে আমাদের ভয় পাওয়াতে চেয়েছিল। আজ কোথায় সেই দল? ওরা শূন্য পেয়েছে।'

এদিকে রাজ্যে বিজেপির শোচনীয় ফল সম্পর্কে রাজ্য সভাপতি কে সুরেন্দ্রণ বলেন, 'আমরা আসন না পেলেও আমাদের ভোট শতাংশ বেড়েছে। আমরা বহু আসনে দ্বিতীয় দল হিসেবে উঠে এসেছি। বাকি আরও যা বিষয় আছে তা পর্যালোচনা করব আমরা।'

বন্ধ করুন