বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > সমালোচনার মুখে নড়েচড়ে বসল বিজেপি, মোদীর সভায় হাজিরা বেঁধে রাখা হল ৫০০-য়

নির্বাচনী স্বার্থে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মধ্যেই বড় জনসভা করবেন নরেন্দ্র মোদী? তা নিয়ে ক্রমশ বাড়ছিল সমালোচনার মাত্রা। সেই পরিস্থিতিতে বিজেপির তরফে জানানো হল, আগামিদিনে মোদী যে মাঠে জনসভা করবেন, সেখানে উপস্থিতি ৫০০-র মধ্যে বেঁধে রাখা হবে।

সোমবার রাজ্য বিজেপির সহ-সভাপতি প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, আগামী ২৩ এপ্রিল রাজ্যে চারটি জনসভা করবেন মোদী। উর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রণের জেরে জনসভায় ৫০০ জনের বেশি সশরীরে উপস্থিত থাকতে পারবেন না। তিনি বলেন, 'আগামী ২৩ এপ্রিল নরেন্দ্র মোদীজি যখন চারটি জনসভা করবেন, তখন সভার মাঠে ৫০০-এর বেশি মানুষকে ঢুকতে দেওয়া হবে না। সবাইকে মাস্ক পরতে হবে, সামাজিক দূরত্ব-সহ অন্যান্য করোনা বিধি মেনে চলতে হবে। মঞ্চে কতজন বসবেন, সেই সংখ্যাটাও কাটছাঁট করা হবে।'

চলতি মাসের গোড়া থেকে পশ্চিমবঙ্গ-সহ ভারতে হুড়মুড়িয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। তারইমধ্যে পশ্চিমবঙ্গে চলছে ভোটের প্রচার। যেখানে দলমত নির্বিশেষে করোনাবিধিকে ফুৎকারে উড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। বড় বড় জনসভায় অধিকাংশের মুখে মাস্ক থাকছিল না। আর সামাজিক দূরত্বের বিধি তো ডুমুরের ফুল। সেই পরিস্থিতিতে প্রথমে বামেদের তরফে জানানো হয়, বড় জনসভা এড়িয়ে যাওয়া হবে। সেই পথে হেঁটে মাত্র দুটি জনসভার পর কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বাংলায় যাবতীয় সভা বাতিল করে দেন। দিনকয়েক পর মমতাও জানান, একটি জনসভা কলকাতায় সব জমায়েত বাতিল করছেন। তবে বিজেপির তরফে সেরকম কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি। বরং গত ১৭ এপ্রিল আসানসোলের জনসভায় ভিড় দেখে রীতিমতো আপ্লুত হন মোদী। তা নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল। তারপর মোদীর জনসভার ভিড়ে রাশ টানার পথে হেঁটেছে বিজেপি।

বন্ধ করুন