বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > নিজেকে ওটিটির ‘বচ্চন’ বলে দাবি অভিষেকের! মুখ খুললেন সেই নিয়ে
‘দ্য বিগ বুল’ ট্রেলারের দৃশ্যে অভিষেক
‘দ্য বিগ বুল’ ট্রেলারের দৃশ্যে অভিষেক

নিজেকে ওটিটির ‘বচ্চন’ বলে দাবি অভিষেকের! মুখ খুললেন সেই নিয়ে

  • ডিজিটালে ডেবিউ করার পর অভিনেতার চতুর্থ ওয়েব ছবি মুক্তি পেতে চলেছে শীঘ্রই।

অমিতাভ বচ্চনের ছেলে বা ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের স্বামী হওয়ার জন্য প্রায় সময়েই নানা কাটাক্ষের সম্মুখীন হতে হয় অভিষেক বচ্চনকে। আপাতত, আসন্ন ছবি ‘দ্য বিগ বুল’র মুক্তির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি। এক সাক্ষাৎকারে নিজেকে ওটিটির ‘বচ্চন’ বলে ডেকে বসলেন অভিষেক।

হর্ষদ মেহেতার চরিত্রে ‘দ্য বিগ বুল’এ অভিনয় করছেন অভিষেক বচ্চন। অজয় দেবগণ প্রযোজিত এবং কুকি গুলাটি পরিচালিত দ্য বিগ বুল। ১৯৮০ থেকে ১৯৯০ সালের মধ্যে স্টক ব্রোকার হর্ষদ মেহেতার আর্থিক দুর্নীতি নিয়ে তৈরি এই ছবি। অভিষেকের চরিত্রও স্টক ব্রোকার হর্ষদ মেহতার অনুপ্রেরণায় তৈরি। ৮ এপ্রিল ডিজনি প্লাস হটস্টারে মুক্তি পেতে চলেছে বহু প্রতীক্ষিত এই ছবি।

এক সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অভিনেতা নিজেকে বলেন, ‘ওটিটি-র বচ্চন’(অর্থাৎ ওটিটি’র অমিতাভ বচ্চন)। তিনি বলেন, ডিজিটাল থেকে টেলিভিশন স্ক্রিন, সেখানে গল্প বলার ক্ষেত্রে নানা কায়েদা রয়েছে। সেখানে গল্প বলার ক্ষেত্রে সব থেকে বড় সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছিল কুকি গুলাটিকে। ছবিটি ৭০ মিলিমিটার স্ক্রিনের কথা মাথায় রেখে বানাতে হয়েছে তাঁকে। কারণ পরিস্থিতি জটিল করোনার জন্য। তাই তাঁকে গল্প বলার ক্ষেত্রে ডিজিটাল স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মের কথা মাথায় রাখতে হয়েছিল।

তিনি আরো বলেন, ‘লোকেরা যখন এটি বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে দেখেন, তারা আলাদা মনোভাব নিয়ে যান। অতএব, এগুলি তিনটি সম্পূর্ণ আলাদা বিষয় কথা মাথায় রেখে তৈরি করা হয়। তাই আমি মনে করি প্রত্যেকের জন্য জায়গা রয়েছে, আমি মনে করি ডিজিটাল ভবিষ্যত এবং এটি অবশ্যই এখানে রয়েছে, তবে এটি সিনেমা হলগুলির সমান্তরাল উপায় হিসেবে পরিণত হতে চলেছে’।

২০২০ সালে ‘ব্রেথ’ বছির মাধ্যমে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে ডেবিউ হয় অভিষেকের। এছাড়াও, ‘সন অফ সয়েল’ এবং অনুরাগ বসুর ‘লুডো’ ছবিতে কাজ করেছেন তিনি।

বন্ধ করুন