বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'আন্দোলনরত কৃষকরা পিৎজা খাচ্ছেন কীভাবে?' কটাক্ষ শুনে ফুঁসে উঠলেন দিলজিৎ দোসাঞ্জ
কৃষকদের পাশে রয়েছেন দিলজিৎ দোসাঞ্জ
কৃষকদের পাশে রয়েছেন দিলজিৎ দোসাঞ্জ

'আন্দোলনরত কৃষকরা পিৎজা খাচ্ছেন কীভাবে?' কটাক্ষ শুনে ফুঁসে উঠলেন দিলজিৎ দোসাঞ্জ

  • কৃষকরা বিষ খেলে সেই নিয়ে তো কারুর মাথাব্যাথা হয় না- সপাট জবাব দিলজিৎ দোসাঞ্জের। 

কেন্দ্রের আনা কৃষিবিলের বিরোধিতা করে পথে নেমেছেন কয়েক হাজার কৃষক। আর এই আন্দোলনে শুরু থেকেই কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন একাধিক তারকা। তালিকায় একদম উপরের সারিতে রয়েছে পঞ্জাবি গায়ক তথা অভিনেতা দিলজিৎ দোসাঞ্জের নাম। আর্থিক সহায়তাই নয়, সশরীরে ময়দানে নেমে প্রতিবাদের সুর চড়িয়েছেন দিলজিৎ। এবার আন্দোলনরত কৃষকদের উদ্দেশে উড়ে আসা কটাক্ষেরও সপাট জবাব দিলেন তারকা। হতাশার সুরে পঞ্জাবি অভিনেতা টুইটারে বলেন, এটা দুর্ভাগ্যজনক যে কৃষকদের বিষ খাওয়ার চেয়ে বেশি চর্চা হচ্ছে তাঁদের পিৎজা খাওয়ার ব্যাপারে। 

সম্প্রতি টুইটারে আন্দোলনরত কৃষকরা রাস্তার পাশেই পিৎজা বানিয়ে খাচ্ছেন এমন এক ছবি সামনে আসে।সেই ছবি দেখে কিছু 'অসংবেদনশীল' নেটিজেন প্রশ্ন তোলেন কীভাবে আন্দোলনরত চাষীরা পিৎজা খাচ্ছেন? দিলজিৎ টুইটারে একটি পোস্ট শেয়ার করেন, সেখানে লেখা- ‘চাষীরা বিষ পান করছে, সেটা নিয়ে কারুর মাথাব্যাথা নেই, তবে তাঁরা পিৎজা খাচ্ছে সেটা সংবাদ শিরোনাম তৈরি করছে'। সঙ্গে তিনি যোগ করেন- ‘খুব ভালো। এটা তোমাদের মনে খুব ব্যাথা দিচ্ছে তাই না?’

শুরুতেই দিলজিৎ কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানাচ্ছেন কৃষকদের দাবিদাওয়াগুলো বিচার করে দেখতে। সম্প্রতি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের সঙ্গেও কৃষক আন্দোলন নিয়েে তীব্র বাকযুদ্ধে জড়িয়েছেন দিলজিৎ। সেই ঝামেলার আঁচ এখনও ঠান্ডা হয়নি। 

গত ২৭ নভেম্বর এক শিখ মহিলাকে শাহিনবাগের আন্দোলনের ‘দাদি’ হিসেবে টুইটারে উল্লেখ করেছিলেন কঙ্গনা। দাবি করেছিলেন, ১০০ টাকার জন্য শাহিনবাগের ‘দাদি’ কৃষক বিক্ষোভে যোগ দিয়েছেন। তুমুল সমালোচনার মুখে পড়ে কঙ্গনা সেই টুইট ডিলিট করেন। সেই টুইট নিয়ে শুরু দিলজিত্-কঙ্গনার টুইট যুদ্ধ।

কঙ্গনা যে মহিলার ছবি শেয়ার করেছিলেন পঞ্জাবের সেই কৃষক মহিলার নাম মহিন্দর কৌরজি। গত ৩রা ডিসেম্বর শিখ মহিলার একটি সাক্ষাত্কার টুইটারে শেয়ার করে দিলজিত্ লেখেন, ওই শিখ মহিলা মহিন্দর কৌরের ভিডিয়ো শেয়ার করে দিলজিৎ লেখেন, ‘সম্মানীয় মহিন্দর কৌরজি। কঙ্গনা রানাওয়াত এই প্রমাণ দেখে নিন। কারোর অন্ধ হওয়া উচিত নয়। উনি যা খুশি বলতে থাকেন'। এরপর একের পর এক টুইটে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়ে জড়িয়ে পড়েন দুজনে। এমনকি দিলজিৎ-কে সরাসরি করণ জোহরের ‘পোষ্য’ বলে কটাক্ষ করেন কঙ্গনা।

বন্ধ করুন