বাড়ি > বায়োস্কোপ > আয়ুষ্মান খুরানা ‘রাইজিং স্টার’ নন,সাংবাদিকের ভুল শুধরে দিলেন অমিতাভ বচ্চন
শুক্রবার আমাজন প্রাইমে স্ট্রিমিং শুরু হবে এই জুটির গুলাবো সিতাবোর
শুক্রবার আমাজন প্রাইমে স্ট্রিমিং শুরু হবে এই জুটির গুলাবো সিতাবোর

আয়ুষ্মান খুরানা ‘রাইজিং স্টার’ নন,সাংবাদিকের ভুল শুধরে দিলেন অমিতাভ বচ্চন

  • শুক্রবার থেকে আমাজন প্রাইমে স্ট্রিমিং শুরু হচ্ছে অমিতাভ-আয়ু্ষ্মান জুটির গুলাবো-সিতাবোর। ছবি মুক্তির আগে আয়ুষ্মানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ বিগ বি। 

বলিউডে ফিল্ম ফ্রাইডের সংজ্ঞাটা আগামিকাল থেকে হয়ত বদলে যেতে চলেছে। ১২জুন, শুক্রবার ডিজিটাল স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম আমজন প্রাইমে সরাসরি মুক্তি পাচ্ছে অমিতাভ বচ্চন ও আয়ুষ্মান খুরানা জুটির গুলাবো সিতাবো। ওটিটি প্ল্যাটফর্মে এই ছবি মুক্তির প্রসঙ্গে হলিউড রিপোর্টারকে বিগ বি জানিয়েছেন,'সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদলটাই শ্রেয়'। বলিউডে পাঁচ দশক দীর্ঘ ফিল্মি কেরিয়ারে অনেক চড়াই উতরাইয়ের সাক্ষী থেকেছেন শাহেনশা, ফের একবার নতুন এক স্রোতে গা ভাসাতে চলেছে তিনি।

পরিচালক সুজিত সরকারের এই ছবিতেই প্রথমবার আয়ুষ্মান খুরানার সঙ্গে কাজ করলেন অমিতাভ। সাক্ষাত্কার নেওয়ার সময় আয়ুষ্মানকে রাইসিং স্টার বলে বর্ণনা করেন সাংবাদিক যা এক্কেবারে পছন্দ হয়নি বিগ বি'র।তিনি ভুল শুধরে জানান,'আয়ুষ্মান উদীয়মান তারকা নন, আয়ুষ্মান পুরোপুরিভাবে উদিত তারকা',মত অমিতাভের। আয়ুষ্মান নিজের নামের সঙ্গেও  সুবিচার করেছেন বললেন অমিতাভ বচ্চন। আসলে আয়ুষ্মান শব্দের অর্থই হল 'দীর্ঘজীবী'। 

বিগ বি আরও বলেন, আজকের জেনারেশনের অভিনেতারা দুর্দান্ত,ওঁরা প্রত্যেকেই অসাধারণ। ওঁঁদের প্রস্তুতি এত সুন্দর,ভীষণ আত্মবিশ্বাসী। পুরোপুরিভাবে প্রতিভায় ভরপুর,কোনও খামতি নেই।আমি ওঁদের থেকে কত কিছু শিখি, ওঁদের যা থেকে যা কিছু শেখা যায় সবটাই গ্রহণ করি। আমি তো নিজেকে সৌভাগ্যবান ভাবি যে ওঁদের সঙ্গে কাজ করতে পারছি'। 

করোনা সংকটে থিয়েটারে মুক্তি না পেয়ে সরাসরি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাচ্ছে পরিচালক সুজিত সরকারের এই ছবি। বাড়িওয়ালা মির্জার সঙ্গে ভাড়াটে বাঁকের খুনসুটি ধরা পড়বে এই ছবিতে। পিকুর পর ফের একবার সুজিত সরকারের ছবিতে অমিতাভ বচ্চন, অন্যদিকে ভিকি ডোনারের পর পরিচালকের সঙ্গে ফের কাজ করছেন আয়ুষ্মান খুরানা। ভিকি ডোনারে আয়ুষ্মান বুঝিয়ে দিয়েছিলেন বলিউডে লম্বা রেসের ঘোড়া তিনি। গত আট বছরে অনেকখানি পথ পার করে ফেলেছেন আয়ুষ্মান। ইতিমধ্যেই তাঁর ঝুলিতে রয়েছে সেরা অভিনেতা হিসাবে জাতীয় পুরস্কারও (অন্ধাধুন ছবির জন্য)। বলিউডে আয়ুষ্মান মানেই একটু হটকে, একটু আলাদা। তথাকথিত হিরোসুলভ ইমেজ ভেঙে ভিকি ডোনার, দম লাগাকে হাঁইসা, অন্ধাধুন, শুভ মঙ্গল সাবধান, বাধাই হো, ড্রিম গার্ল, শুভ মঙ্গল জায়দা সাবধানের মতো ছবি দর্শকদের উপহার দিয়েন অভিনেতা। কিন্তু প্রতিটি ছবি বক্স অফিসে দুর্দান্ত সফল। তাই তাকে কী কোনওভাবে রাইসিং স্টার বলা চলে? না একদম নয়। 

বন্ধ করুন