বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Mahapith Tarapith: শান্তির খোঁজে বামদেবের কাছে কবিগুরু! গৌরব সাজলেন রবিঠাকুর
বামদেব ও রবীন্দ্রনাথ। 
বামদেব ও রবীন্দ্রনাথ। 

Mahapith Tarapith: শান্তির খোঁজে বামদেবের কাছে কবিগুরু! গৌরব সাজলেন রবিঠাকুর

  • ফের একবার ছোট পরদায় উত্তম কুমারের নাতি। প্রথম লুকেই বাজিমাত। 

‘মহাপীঠ তারাপীঠ’-র দর্শকদের জন্য থাকছে নতুন সারপ্রাইজ। এবার তারাপীঠে বামা-র সঙ্গে দেখা করতে আসছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। টলিপাড়ার এক জনপ্রিয় মুখকে দেখা যাবে সেই চরিত্রে। এই কিছুদিন হল ‘মথুরামোহন বিশ্বাস’-এর খোলস ছেড়েছেন গৌরব চট্টোপাধ্যায়, এবার তিনি রবিঠাকুরের ভূমিকায়। স্টার জলসার তরফে ইনস্টাগ্রামে শেয়ার হওয়া প্রোমো বলছে আজ বুধবার দেখানো হবে এই পর্ব। ‘চারণ কবি’ মুকুন্দদাসকে নিয়ে তিনি হাজির সাধক বামদেবের আশ্রমে, একটু শান্তির খোঁজে। মুকুন্দদাসের ভূমিকায় অভিনয় করছেন ছোট পর্দার চেনা মুখ অরিত্র দত্ত।

এক বাংলা সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পরিচালক শুভেন্দু চক্রবর্তী জানান, ইংরেজ পরাধীন ভারতে শান্তির খোঁজে অস্থির রবিঠাকুর এসেছিলেন তারাপীঠে, চারণ কবিকে সঙ্গে নিয়ে। আর সেটাই দেখানো হবে বর্তমানে। 

পরিচালকের আরও জানিয়েছেন, ইতিহাস অনুসারে রবি ছোটবেলায় তাঁর বাবা মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুরের সঙ্গেও গিয়েছিলেন তারাপীঠে। সেই সময় বামদেব দেবেন্দ্রনাথের মাথায় হাত রেখে বলেছিলেন, বোলপুরে ছাতিম গাছের নীচে শান্তিনিকেতন প্রতিষ্ঠিত হবে। যার খ্যাতি হবে গোটা বিশ্বে। সে কথা বড় হয়েও মনে আছে রবীন্দ্রনাথের। তাই অশান্ত মন নিয়ে ছুটে এসেছেন আশীর্বাদের জন্য।

বিগত কয়েক বছর ধরে মথুরামোহনের চরিত্রে অভনয় করে আসছেন গৌরব। তবে ‘করুণাময়ী রাণি রাসমণী’ থেকে বিদায় নিয়েছেন কিছুদিন আগে। রানি মা-র পর মথুরামোহনের চলে যাওয়া মেনে নিতে পারেনি দর্শক। তবে আশার কথা, প্রিয় অভিনেতাকে আরও একবার তাঁরা দেখতে পারবে। চলতি সপ্তাহের সোমবার থেকেই তিনি ‘মহাপীঠ তারাপীঠ’র টিমে যোগ দিয়েছেন। 

উত্তম কুমারের নাতির সঙ্গে কাজের সুযোগ পেয়ে বেশ খুশি বামা সব্যসাচী চৌধুরীও। জানালেন, ‘অভিজ্ঞতা আমার থেকে অনেক বেশি। আর ভীষণ ভালোমানুষ। গৌরবের সঙ্গে কাজ করে আনন্দ পাচ্ছি।’ তবে, খুব বেশিদিন দেখা যাবে না গৌরবকে। বড়জোর সপ্তাহখানেক।

বন্ধ করুন