বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কোভিড বিধি ভাঙায় জরিমানা পুলিশের! 'খুন করেছি না মদ খেয়ে গাড়ি চালিয়েছি?' পালটা প্রশ্ন ইশার
ইশা সাহা (ছবি-ফেসবুক)
ইশা সাহা (ছবি-ফেসবুক)

কোভিড বিধি ভাঙায় জরিমানা পুলিশের! 'খুন করেছি না মদ খেয়ে গাড়ি চালিয়েছি?' পালটা প্রশ্ন ইশার

  • নাইট কার্ফু ভেঙে বিপাকে ইশা সাহা। সল্টলেকে নায়িকার গাড়ি আটকায় পুলিশ, দিতে হল জরিমানা। 

করোনার জেরে শহরে জারি রয়েছে নাইট কার্ফু, আর সেই বিধি লঙ্ঘন করে পুলিশের হাতে আটক অভিনেত্রী ইশা সাহার গাড়ি। শুক্রবার রাতে সল্টলেকে নাকা চেকিংয়ের সময় আটকানো হয় অভিনেত্রীর গাড়ি। বিধি ভাঙার উপযুক্ত কারণ দর্শাতে পারেননি অভিনেত্রী দাবি পুলিশের, এরপর ট্রাফিক আইনে জরিমানা করে ছেড়ে দেওয়া হয় অভিনেত্রীর গাড়ি।

গোটা ঘটনায় চাঞ্চল্য টলিপাড়ায়। নাকা চেকিংয়ের সময় সেখানে উপস্থিত ছিল একাধিক মিডিয়ার ক্যামেরা, অভিনেত্রীর ছবিও লেন্সবন্দি হয় সেখানে।কার্ফু অমান্য করে রাতে বাইরে ঘুরে বেড়ানোর কারণ পুলিশের কাছে স্পষ্ট না করলেও সংবাদমাধ্যমকে পরবর্তী সময়ে সাফাই দিয়েছেন ‘সোয়েটার’ খ্যাত এই নায়িকা। তিনি জানিয়েছেন, অনন্য দিন সময়মতো মিটিং সেরে বাড়ি ফিরে আসেন, শুক্রবার রাতে সামন্য দেরি হয়েছিল। এরপর বেলেঘাটায় নাকা চেকিংয়ে প্রায় ৪০-৪৫ মিনিট আটকে ছিল তাঁর গাড়ি, এরপর চার নম্বর গেট পার করবার সময় ফের গাড়ি আটকায় পুলিশ। 

অভিনেত্রীর দাবি, সংবাদমাধ্যম ‘তিলকে তাল করে দেখাচ্ছে, গুজব রটেছে আমি গাড়ির কাগজপত্র দেখাতে পারিনি, কিন্তু বিষয়টা হল আমার নাইট কার্ফুতে বেরানোর অনুমতি ছিল না, এইটুকুই’। ইশার দাবি গোটা বিষয়টা ‘অতিরঞ্জিত’ করে দেখানো হচ্ছে। নাকা চেকিংয়ে গাড়ি আটকানোর পর পুলিশের গাড়িতে থানায় যান ইশা, সেখান থেকে চালান কেটে জরিমানা নেওয়া হয় অভিনেত্রীর থেকে। এক ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমকে ইশা জানান, থানার বাইরে এক ব্যক্তি তাঁর গাড়ির চালককে বলপূর্বক গাড়ির ভিতর থেকে টেনেহিঁচড়ে নামানোর চেষ্টা করেন। যা দেখে আতঙ্কিত অভিনেত্রী। তাঁর প্রশ্ন, ‘আমি কি খুন করেছি? নাকি মদ খেয়ে গাড়ি চালিয়েছি?’

সামন্য বিষয়কে বড়ো করে দেখানো হচ্ছে দাবি ইশার, তিনি জানান আমার মতো অনেকের গাড়িই তো আটকানো হয়েছিল। সব ঝামেলা মিটিয়ে রাত সাড়ে বারোটার পর বাড়ি ফেরেন ইশা। আক্ষেপের সুরে ইশা জানালেন, ‘কই মিডিয়া তো একবার দেখানো না বেলেঘাটার কাছে ৪৫ মিনিট লাইনে দাঁড়িয়ে সময় নষ্ট হওয়ার কথাটা!'

বন্ধ করুন