বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'নারীদের নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য বাংলার সংস্কৃতি নয়', প্রতিবাদে আজ পথে নামছে টলিউড
প্রতিবাদী টলিপাড়া
প্রতিবাদী টলিপাড়া

'নারীদের নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য বাংলার সংস্কৃতি নয়', প্রতিবাদে আজ পথে নামছে টলিউড

  • দুপুর ৩টের সময় মেট্রো চ্যানেলে এই প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়েছে। 

ফের পথে নামছে কলকাতার সংস্কৃতি জগতের মানুষেরা। তবে কোনও রাজনৈতিক এজেন্ডা নয়, আজ টলিপাড়ার পথে নামার কারণ মহিলা সহকর্মীদের বিরুদ্ধে অকারণেই ধেয়ে আসা ‘খুন’ ও ‘ধর্ষণ’-এর হুমকি। সোশ্যাল মিডিয়া বা মিডিয়ায় কোনও কিছু নিয়ে মন্তব্য করলে অনলাইনে ক্রমাগত ধর্ষণ ও খুনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে মহিলা শিল্পীদের। এর জেরে নাজেহাল অনেকেই। সাম্প্রতিক সেই তালিকায় নিঃসন্দেহে রয়েছেন অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ ও দেবলীনা দত্ত। জানা গিয়েছে কোনও রাজনৈতিক নঙ নয়, কেবলমাত্র মানবিকতার পতাকা উড়িয়েই হবে সোমবারের এই প্রতিবাদ। ভিড় জমবে মেট্রো চ্যানেলে দুপুর তিনটের সময়।এই  প্রতিবাদ সভাটির আয়োজন করেছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। সভায় থাকবেন টলিউডের বহু ব্যক্তিত্ব। 

এই প্রতিবাদ সভার নাম, ‘এ কোন সকাল, রাতের চেয়েও অন্ধকার। সভার পোস্টারই বলে দিচ্ছে তার সারমর্ম।পোস্টারে আঁকা রয়েছে এক মহিলার ছবি, যার দু-চোখ দিয়ে ঝরে পড়ছে জল। নীচের পরিচ্ছদে তুলে ধরা হয়েছে ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের অভিব্যক্তি। জানা গিয়েছে বিজেপির বিরুদ্ধে নয়, সবরকম ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধেই প্রতিরোধ গড়ে তুলতে এই প্রতিবাদ সভা। সভার পোস্টারে লেখা রয়েছে- ‘এই মাটি নারীর সম্মান রক্ষার জন্যে সবার আগে সমস্ত মৌলবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করেছে, আজও হবে না। কোনও নারীকে অপমান করা, তাকে ট্রোল করা, তার সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্য করা বাংলার সংস্কৃতি নয়’।

রাজ চক্রবর্তী ছাড়াও মহিলা কমিশনের অধ্যক্ষা লীনা গঙ্গোপাধ্যায়, অভিনেতা কৌশিক সেন, ঋদ্ধি সেনের মতো বিশিষ্টজনেরা এই দিন উপস্থিত থাকছেন মানুষের কণ্ঠরোধের বিরোধিতায়। যোগ দেবেন সাধারণ মানুষও। দুপুর ৩টের সময় মেট্রো চ্যানেলে হাজির হবেন সায়নী ঘোষ এবং দেবলীনা দত্তও। 

জয় শ্রীরাম ধ্বনি নিয়ে এক টেলিভিশন অনুষ্ঠানে মন্তব্য করার অভিনেত্রী সায়নী ঘোষকে আক্রমণ শানায় বিজেপি। তবে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে নেতাজি জন্মজয়ন্তীতেও ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। এরপর সায়নী জানান, ‘জয় শ্রীরাম নিয়ে আমি যা বলেছিলাম, মানুষ ক্রমশ তার সত্যতা যাচাই করতে পারবেন’। অন্যদিকে এক টক-শো'তে দেবলীনা জানিয়েছিলেন নিজে নিরামিষাশী হলেও, তিনি গরুর মাংস রান্না করতে পারেন। এই নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। ক্রমাগত সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্ষনের হুমকি দেওয়া হয় দেবলীনাকে। এমনকি থানায় অভিযোগ দায়ের হয় তাঁর নামে। যদিও গোটা ঘটনায় দেবলীনা দত্তের পাশে দাঁড়িয়েছেন বাংলার শিল্পীরা। 

বন্ধ করুন