বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Runway 34: অজয়কে হাতে লেখা চিঠি অমিতাভের, আবেগে ভাসলেন অভিনেতা-পরিচালক
‘রানওয়ে ৩৪’-এ অজয়ের সঙ্গে অমিতাভ বচ্চন
‘রানওয়ে ৩৪’-এ অজয়ের সঙ্গে অমিতাভ বচ্চন

Runway 34: অজয়কে হাতে লেখা চিঠি অমিতাভের, আবেগে ভাসলেন অভিনেতা-পরিচালক

  • বছর খানেক আগে দোহা থেকে কোচি আসার পথে খারাপ আবহাওয়া থেকে কোনওরকমে বেঁচে গিয়েছিল একটি যাত্রীবাহী বিমান। সেই ঘটনাকেই পর্দায় তুলে ধরেছেন অজয়। ঠিক কী লেখা রয়েছে বিগ বি-এর চিঠিতে? 

অজয় দেবগণ, রকুলপ্রীত সিং অভিনীত 'রানওয়ে ৩৪'। ২৯ এপ্রিল সিনেমাহলে মুক্তি পেয়েছে এই ছবি। আরও অভিনয় করেছেন অমিতাভ বচ্চন, বোমান ইরানি প্রমুখ। এই ছবির গল্প বাস্তব ঘটনার উপর তৈরি। বছর খানেক আগে দোহা থেকে কোচি আসার পথে খারাপ আবহাওয়া থেকে কোনওরকমে বেঁচে গিয়েছিল একটি যাত্রীবাহী বিমান। সেই ঘটনাকেই পর্দায় তুলে ধরেছেন অজয়।

এভিয়েশন ড্রামায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন বিগ বি। শনিবার ইনস্টাগ্রাম পোস্টে ছবি প্রসঙ্গে বেশ কিছু অজানা কথা শেয়ার করেছেন অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। অজয় আগেই জানিয়েছিলেন, ছবির জন্য বিগ বি রাজি না হলে এই ছবি তিনি বানাতেন না। আরও পড়ুন: পর্দায় ‘বিক্রান্ত খান্না’ অজয়, প্রথম দিনে মাত্র ৩ কোটির ব্যবসা 'রানওয়ে ৩৪'-এর!

অমিতাভের হাতে লেখা একটি চিঠি টুইট করেছেন অজয়। ক্য়াপশনে ‘সিংহম’ অভিনেতা লিখেছেন, ‘আপনার পরিচালনায় যখন খ্যাতনামা অমিতাভ বচ্চন অভিনয় করেন, তখন এটি একটি সম্মানের, ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন। একই সঙ্গে যখন হাতে লেখা চিঠিতে নিজের মনের কথা তিনি প্রকাশ করেন, বেশ আবেগের। আমি কৃতজ্ঞ এবং সন্তুষ্ট। ধন্যবাদ অমিতজি। #Runway34।'

চিঠিতে ২৯ এপ্রিল তারিখ দেওয়া রয়েছে। নোটপ্যাডে লেখা ওই চিঠিতে অমিতাভ বচ্চন এবং জয়া বচ্চনের নাম রয়েছে। সেইসঙ্গে বচ্চনের জন্য ‘B’ আকারে একটি লোগো ছিল। চিঠিতে অমিতাভ লিখেছেন, ‘অজয়! অজয়! অজয়! ৩৪-এর অংশ হতে পেরে এবং এক দুর্দান্ত পরিচালকের সঙ্গে কাজ করাটা পরম সম্মানের। তোমার কাজ উঁচু মানের। যেভাবে সবকিছু এক জায়গায় জড়ো করেছ তুমি তা অসাধারণ। ওরা সবাই তোময় সেরা বলছে। কিন্তু আমি জানি যে আরও অনেক 'সেরা' আসবে। অভিনন্দন।'

অজয় অমিতাভের আরও এটি নোট শেয়ার করেছেন। লিখেছেন, ‘এবং, অমিতজি এই কথাগুলো দিয়ে তার বার্তা শেষ করেছেন।’ চিঠিতে লেখা রয়েছে, ‘পিএস: আপনার অভিব্যক্তি এবং ককপিটে আপনার অভিনয় সত্যিকারের প্রতিভা ছিল।’

'রানওয়ে ৩৪' গল্পের কেন্দ্রে রয়েছেন ক্যাপ্টেন বিক্রান্ত খন্না। সেই চরিত্রে অভিনয় করছেন অজয়। যাত্রীদের বাঁচাতে ফ্লাইটের অল্টারনেট ডেস্টিনেশন পালটে দেন বিক্রান্ত। বিমান অবতরণের মাত্র কয়েক মুহূর্ত আগে 'মে ডে'-এর মেসেজ পাঠান কনট্রোল টাওয়ারকে। নিমেষের জন্য প্লেন ক্র্যাশ হওয়া থেকে বেঁচে যায়। ছবির বেশিরভাগ অংশ জুড়ে রয়েছে এই ঘটনার তদন্ত। অজয় দেবগণ ছবিতে অভিনয়ের পাশাপাশি, পরিচালনা ও প্রযোজনাও করেছেন।

হিন্দুস্তান টাইমসের রিভিউ অনুযায়ী, ‘পরিচালকে টুপি মাথায় গলিয়ে আরও এক দুর্দান্ত কাজ অজয়ের। তিনি একজন মহান গল্পকার বলাই যায়। রানওয়ে ৩৪-এ অভিনয়ের পাশাপাশি এক দারুণ অভিজ্ঞতা তুলে ধরেছেন। কোনও সময়েই তিনি তার চরিত্রগুলিকে অযৌক্তিক বিবরণ দিয়ে সাজিয়ে সময় নষ্ট করেননি- সেটি একজন দক্ষ, শান্ত অথচ অহংকারী পাইলট হিসাবে তার নিজেরই হোক, যে নিজের দক্ষতা সম্পর্কে অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী, বা রাকুলপ্রীতকে একজন ভীত সহ-পাইলট হিসাবে হোক। তিনি বাস্তবের ঘটনার উপর জোর দেন এবং আপনাকে মাটি থেকে হাজার হাজার ফুট উপরে একটি যাত্রায় নিয়ে যান।’

 

বন্ধ করুন