বাড়ি > বায়োস্কোপ > দাবাং খানের জনপ্রিয়তায় ছেদ ধরালেন ছেদি সিং, এগিয়ে সোনু সুদ বলছে Google-এর তথ্য
জনপ্রিয়তার নিরিখে ভাইজানকে ছাপিয়ে গেলেন সোনু সুদ!
জনপ্রিয়তার নিরিখে ভাইজানকে ছাপিয়ে গেলেন সোনু সুদ!

দাবাং খানের জনপ্রিয়তায় ছেদ ধরালেন ছেদি সিং, এগিয়ে সোনু সুদ বলছে Google-এর তথ্য

  • গত এক সপ্তাহে দেশের ইন্টারনেট কাঁপাচ্ছেন সুপারম্যান সোনু।গুগুলের তথ্য বলছে ২৩ এপ্রিল থেকে জনপ্রিয়তার নিরিখে সলমন খানের চেয়েও এগিয়ে রয়েছেন তারকা!

বলিউডেরই নয় এই দেশের অন্যতম জনপ্রিয় সুপারস্টার সলমন খান।সোশ্যাল মিডিয়া থেকে গুগল ট্রেন্ড সর্বত্রই সেই ছবি বিদ্যমান। মাসখানেক আগেও যদি আপনাকে বলা হত এদেশে সলমন খানের চেয়ে জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব সোনু সুদ, তাহলে বোধহয় আপনি সেকথা মেনে নিতেন না। কিন্তু গত দশ দিনে বদলে গিয়েছে সমস্ত হিসেব-নিকেশ। দাবাং খানের জনপ্রিয়তাকে ছাপিয়ে গিয়েছেন ছেদি সিং! কারুর কাছে অবিশ্বাস্য ঠেকলেও তেমনই বলছে গুগল ট্রেন্ড।

করোনা সংকটের সময় পরিযায়ী শ্রমিকদের সুপারম্যান হিসাবে যেভাবে সামনে এসেছেন সোনু সুদ,তাতে গোটা দেশ তারকার প্রশংসায় পঞ্চমুখ।সেলেব্রিটি থেকে আম জনতা সকলেই সোনুর এই মহান উদ্যোগকে কুর্নিশ না জানিয়ে পারছেন না।ইতিমধ্যেই নিজের প্রচেষ্টায় ১২ হাজারেরও বেশি শ্রমিককে ঘরে ফিরিয়েছেন সোনু। তাঁর কাছে সাহায্য চাইলে কাউকেই নিরাশ করছেন না তারকা। সব মিলিয়ে সোনুকে নিয়ে চারিদিকেই ধন্য ধন্য রব উঠেছে। কেউ কেউ তো বলছেন ‘গরীবের ভগবান’ সোনু সুদ।বিহারের একদল যুবক তো সোনু সুদের মূর্তি তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে। সোনু সুদকে ভারতরত্ন সম্মান দেওয়ার দাবিও উঠছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সোনুর এই বাঁধভাঙা জনপ্রিয়তার সোজা এফেক্ট পড়েছে গুগল ট্রেন্ডসে। বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগুলের ডাটা বলছে গত ১২ মাসে যেখানে সোনুর জনপ্রিয়তা সলমনের চেয়ে এক্কেবারেই তলানিতে ছিল,যেখানে ২৩ শে মে থেকে সলমন খানকে ছাপিয়ে গিয়েছেন তাঁর দাবাং কো-স্টার। এখন সলমনের চেয়ে অনেকখানি এগিয়ে রয়েছেন সোনু সুদ।

গত ৩০ দিনে গুগুল ট্রেন্ড সলমন ও সোনুর তুলনা (সৌজন্যে-গুগল)
গত ৩০ দিনে গুগুল ট্রেন্ড সলমন ও সোনুর তুলনা (সৌজন্যে-গুগল)

করোনাভাইরাস সংকটের সময় সলমন সময় কাটাচ্ছেন পানভেলের ফার্মহাউসে। ঘরে বসেই তিনটি গানের ভিডিয়ো তৈরি করেছেন ভাইজান। ইদে রাধে মুক্তি পায়নি ঠিকই তবে সলমন ইদি হিসাবে ফ্যানেদের উপহার দিয়েছেন ‘ভাই ভাই’। পাশাপাশি করোনা সচেতনতাতেও সলমন সবরকম প্রয়াস করছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেই নিয়েও কম চর্চা হয়নি, সলমনের জনপ্রিয়তা নিঃসন্দেহে এদেশে কম নয়। তবে গত কয়েকদিনে এই জনপ্রিয়তায় অল্প হলেও ভাটা পড়েছে সেটা বেশ স্পষ্ট।

গত এক বছরে সলমন খান ও সোনু সুদের গুগল ট্রেন্ডের তুলনা (সৌজন্যে-গুগল অ্যানালিটিক্স)
গত এক বছরে সলমন খান ও সোনু সুদের গুগল ট্রেন্ডের তুলনা (সৌজন্যে-গুগল অ্যানালিটিক্স)

তবে আমচমকা এই তুলনার কারণ?

সম্প্রতি বলিউডের অন্যতম বিতর্কিত ব্যক্তিত্ব কমল রশিদ খান তথা কেআরকে টুইটারে দুই অভিনেতা সলমন ও সোনুর জনপ্রিয়তা নিয়ে একটি অনলাইন পোল আয়োজন করেন।প্রশ্ন করেন একই শুক্রবার সলমন খান ও সোনু সুদের ছবি রিলিজ করলে আপনি কার ছবি দেখতে যাবেন? সেই পোলে আশ্চর্যজনকভাবে ৬৫% ভোট নিয়ে জয়ী হন সোনু। সলমন খানের ঝুলিতে ছিল মাত্র ৩৫% ভোট।

তবে করোনা দুর্গতদের পাশে দাঁড়াতে কোনও খামতি রাখছেন না সলমন খানও।করোনা সংকটের শুরু থেকেই আম জনতার পাশে দাঁড়িয়েছেন ভাইজান। ইন্ডাস্ট্রির দিনমজুরদেরও সরাসরি অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাচ্ছেন সলমন খান। লকডাউনে প্রায় ৩০ হাজার বলিউড টেকনিশিয়ান, জুনিয়ার আর্টিস্টদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে প্রতি মাসে নির্দিষ্ট অঙ্কের টাকা পাঠাচ্ছে সলমন খানের ফাউন্ডেশন বিয়িং হিউম্যান। মুম্বইয়ের দুঃস্থ মানুষের খাবার পৌঁছে দিতে বিয়িং হাংরি উদ্যোগ নিয়েছেন সলমন। এছাড়াও দিন কয়েক আগে মুম্বই পুলিশকে ১ লক্ষ স্যানিটাইজার প্রদান করেন সলমন খান। 

বন্ধ করুন