বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মমতাকে সরস্বতী পুজোয় নিজের বাড়ির ‘পুরোহিত’ হিসাবে আমন্ত্রণ জানালেন শ্রীলেখা!
মমতাকে কটাক্ষ শ্রীলেখার 
মমতাকে কটাক্ষ শ্রীলেখার 

মমতাকে সরস্বতী পুজোয় নিজের বাড়ির ‘পুরোহিত’ হিসাবে আমন্ত্রণ জানালেন শ্রীলেখা!

  • অমিত শাহকে সরস্বতী পুজোর মন্ত্র পাঠ করাতে গিয়ে হোঁচট খান মুখ্যমন্ত্রী, সেই নিয়েই ফেসবুকে ফের ট্রোলিংয়ের মুখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বরাবরই নিজের মত প্রকাশে পিছপা হননা শ্রীলেখা মিত্র। ঠোঁটকাটা স্বভাবের জন্য বিতর্কেও জড়ান তিনি, কিন্তু সেই নিয়ে কোনও তোয়াক্কা করেন না অভিনেত্রী। এবারও তার ব্যক্তিক্রম হল না। নিজের বাড়ির সরস্বতী পুজোয় মুখ্যমন্ত্রীকে পুরোহিত থুরি পুরো হিট (Puro Hit) হিসাবে আমন্ত্রণ জানালেন শ্রীলেখা মিত্র। 

ফেবসুকে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন শ্রীলেখা। যেখানে সরস্বতী পুজোর মন্ত্র উচ্চারণ করছেন মুখ্যমন্ত্রী। বঙ্গসফরে এসে সম্প্রতি অমিত শাহ অভিযোগ করেন ‘বাংলায় সরস্বতী পুজো হত না। দুর্গাপুজো হয় না। গেরুয়া শিবিরের চাপে কয়েকবছর পর রাজ্যে সরস্বতী পুজো চালু হয়েছে’। এর পালটা জবাব দিতে মুখ্যমন্ত্রী এক জনসভায় পালটা দাবি করেন,'আগে সরস্বতী পুজোর মন্ত্র বলুক'। এরপর মুখ্যমন্ত্রী নিজে সরস্বতী পুজোর মন্ত্র বলতে শুরু করেন। কিন্তু সরস্বতী বন্দনা বলতে গিয়ে ‘কুচযুগশোভিত মুক্তাহারে’ এই জায়গাটিতে উচ্চারণের গণ্ডগোল হয় মুখ্যমন্ত্রীর। পৈলানে মমতার ভাষণের এই অংশটুকু ফেসবুকের দেওয়ালে শেয়ার করে শ্রীলেখা লেখেন, ‘আমার বাড়িতে নেক্সট সরস্বতী পুজোর পুরো হিট আপনি… হবেন মাননীয়া?’, হ্যাঁ, শব্দের কারসাজিতে পুরোহিত শব্দটিকে এইভাবে ব্যবহার করেছেন শ্রীলেখা। সঙ্গে হ্যাশট্যাগে নারীশক্তি যোগ করেও ভোলেননি অভিনেত্রী।

শ্রীলেখার পোস্ট
শ্রীলেখার পোস্ট

এর আগে ২০১৮ সালেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরস্বতী বন্দনার মন্ত্র পাঠ নিয়ে বিস্তর চর্চা হয়েছিল। তিন বছর পর ফের আলোচনায় মমতার সরস্বতী বন্দনা। 

অন্যদিকে টলিউডে যখন রঙ বদলের রাজনীতি চলছে, তখন একদম উলটো পথে শ্রীলেখা। বরাবর বামপন্থায় বিশ্বাসী এই অভিনেত্রী নিজের আদর্শেই আস্থা রাখছেন। দুদিন আগেই কটাক্ষের সুরে শ্রীলেখা ফেসবুকে লেখেন,  ‘সেল সেল সেল… সেলেবস (তবে শিল্পী নয়)-দের সেল চলছে’। সেলেবস আর শিল্পী এক নয়, তা নিজের পোস্টের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিয়েছেন শ্রীলেখা। শিল্পীসত্ত্বা কোনওদিন বিকিয়ে যায় না, সাফ জানালেন শ্রীলেখা।

বন্ধ করুন