বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বিয়ের পরেও মায়ের সঙ্গেই থাকবেন সারা, ঠিক করে ফেলেছেন সইফ কন্যা

সইফের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর মেয়ে সারা এবং ছেলে ইব্রাহিমকে ঘিরেই কেটেছে অভিনেত্রী অমৃতা সিংয়ের জীবন। আজ ৬৩ বছরে পা দিলেন অমৃতা সিং। মায়ের জন্মদিনে সামাজিক মাধ্যমে আবেগঘন বার্তা পোস্ট করলেন সারা। 

সইফ আলি খানের সঙ্গে অমৃতার যখন বিচ্ছেদ হয়, সারার বয়স তখন মাত্র ৯। একার হাতেই দুই সন্তানকে বড়ো করেছেন অমৃতা। কেরিয়ারের শীর্ষে থাকাকালীন বয়সে ছোট সইফের সঙ্গে প্রণয় ডোরে বাঁধা পড়েন অভিনেত্রী, এরপর সইচ্ছায় কেরিয়ার ছেড়ে সংসারে মন দেন। এদিন সারা ইনস্টাগ্রামে মায়ের উদ্দেশে লেখেন- ‘শুভ জন্মদিন আমার গোটা দুনিয়া, ধন্যবাদ আমার আয়না, আমার শক্তি, আমার অনুপ্রেরণা হওয়ার জন্য’। 

পুরনো এক সাক্ষাৎকারে মা অমৃতার সম্পর্কে সারা জানিয়েছিলেন, ‘আমি সারা জীবন আমার মায়ের সঙ্গে থাকব বলে ঠিক করেছি। এই কথাটা বললে মা আমার উপর রেগে যায় কারণ আমার বিয়ে নিয়ে অনেক কিছু পরিকল্পনা করে রেখেছে সে। কিন্তু উনিও তো আমার সঙ্গেই থাকতে পারেন, তাই নয় কি! তাতে কী সমস্যা?’

অভিনেত্রীর কথায়, ‘আমি মায়ের সঙ্গে সময় কাটাতে ভালোবাসি। কয়েকদিন মা’কে ছাড়া থাকলে আমার মন খারাপ হয়। আমি মায়ের কাছে কিছু লুকোতে পারি না। আবার মাকেই আমি সবথেকে বেশি ভয় পাই’।

মা অমৃতা এবং ভাই ইব্রাহিমের সঙ্গে প্রচণ্ড ঘনিষ্ঠ সারা। পরিবারের সঙ্গে নিজেকে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে রেখেছেন তিনি। কাজের ফাঁকে সময় পেলেই পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে ভালবাসেন সারা আলি খান। গোয়া হোক বা মলদ্বীপ, বন্ধু নয় বরং মায়ের সঙ্গেই ছুটি কাটাতে ভালোবাসেন সারা আলি খান। মাকে ছাড়া সারার জীবন অচল, তাই বিয়ের পরেও মা'কে ছাড়ছেন না তিনি, নিয়ে ফেলেছেন সেই সিদ্ধান্ত। 

 

বন্ধ করুন