বাড়ি > ঘরে বাইরে > ‘প্রণবের সঙ্গে লাঞ্চের স্মৃতি হৃদয়ে থাকবে’, ‘বন্ধু’ হারিয়ে ভেঙে পড়লেন আডবানি
প্রণব মুখোপাধ্যায় ও লালকৃষ্ণ আডবানি (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
প্রণব মুখোপাধ্যায় ও লালকৃষ্ণ আডবানি (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

‘প্রণবের সঙ্গে লাঞ্চের স্মৃতি হৃদয়ে থাকবে’, ‘বন্ধু’ হারিয়ে ভেঙে পড়লেন আডবানি

  •  আডবানি জানান, তিনি বয়সে বড় হলেও সাংসদ হিসেবে প্রণববাবু এক বছরের সিনিয়র ছিলেন।

ভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শ দু'জনের ব্যক্তিগত সম্পর্কের উপর কখনও প্রভাব ফেলেনি। বরং দু'জনের মধ্যে বেশ ভালো সম্পর্ক ছিল। প্রণব মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণের খবরে এমনটাই জানালেন লালকৃষ্ণ আডবানি। মন্তব্য করলেন, একজন ‘বন্ধু’-কে হারিয়েছেন তিনি। যাঁর সঙ্গে অসংখ্য মধ্যাহ্নভোজের স্মৃতি সর্বদা তাঁর হৃদয়ে থাকবে। 

সোমবার প্রণববাবুর মৃত্যুর পর একটি বিবৃতি জারি করে প্রবীণ বিজেপি নেতা বলেন, ‘আমার দীর্ঘদিনের বন্ধু ও সহকর্মীর প্রয়াণে গভীরভাবে শোকাহত। ভালোবেসে আমরা কেউ কেউ তাঁকে প্রণবদা বলতাম। তাঁর সঙ্গে আমার দীর্ঘকালীন ও মনোরম যোগাযোগ ছিল। আমি বয়সে বড় হলেও সাংসদ হিসেবে প্রণবদা আমার থেকে এক বছরের সিনিয়র ছিলেন।’

প্রণববাবুর প্রয়াণের খবর পেয়ে দুই বর্ষীয়ান রাজনীতিদের একসঙ্গে কাটানো মুহূর্তের স্মৃতি রোমন্থন করেন আডবানি। সেই স্মৃতির সাগরে ডুব দিয়ে তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে উনি আমার কাছে সহকর্মীর থেকে বেশি ছিলেন এবং আমরা জনজীবনের বাইরে ও ভিতরে অসংখ্য মূল্যবান মুহূর্ত কাটিয়েছি। যা আমাদের পরিবারিক গণ্ডিতেও প্রবেশ করেছিল। আমাদের বিভিন্ন লাঞ্চের (মধ্যাহ্নভোজ) স্মৃতিগুলি আমার হৃদয়ের কাছে সবসময়ে বিশেষ হয়ে থাকবে।’

আডবানি জানান, তিন সপ্তাহের বেশি সময় ধরে হাসপাতালে ভরতি থাকলেও প্রণববাবু দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে আশা করেছিলেন। তিনি বলেন, ‘তাঁর প্রয়াণে দেশের বড় ক্ষতি হল। আমি এক বন্ধুকে হারালাম। তাঁর আত্মার চিরশান্তি কামনা করি। শর্মিষ্ঠা, অভিজিৎ, ইন্দ্রজিৎ এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।’

বন্ধ করুন