বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আইএস-খোরাসানে নাম লিখিয়েছে কেরলের ১৪, বাগরাম থেকে মুক্তি দিয়েছিল তালিবান
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস

আইএস-খোরাসানে নাম লিখিয়েছে কেরলের ১৪, বাগরাম থেকে মুক্তি দিয়েছিল তালিবান

  • কাবুলের বিমানবন্দরে হামলার পরেই শিরোনামে উঠে এসেছিল ইসলামিক স্টেট-খোরাসান নামক জঙ্গ সংগঠনটি।

কাবুলের বিমানবন্দরে হামলার পরেই শিরোনামে উঠে এসেছিল ইসলামিক স্টেট-খোরাসান নামক জঙ্গ সংগঠনটি। এবার খবর মিলল এই জঙ্গি সংগঠনের সদস্য হিসেবে নাম লিছিয়েছে কেরলের অন্তত ১৪ জন বাসিন্দা। এই জঙ্গিরা বিগত দিনে বাগরাম জেলে বন্দি ছিল। পরবর্তীতে তালিবান বাগরামের দখল নিলে সেই কারাগার থেকে যখন সব জঙ্গিদের ছেড়ে দিয়েছিল, তখনই মুক্তি পেয়েছিল এই ১৪ জন।

এদিকে জানা গিয়েছে আইএস-খোরাসানে নাম লেখানো ১৪ কেরলবাসীর মধ্যে একজন তার বাড়িতে যোগাযোগ করেছে। বাকি ১৩ জন জঙ্গি এখনও কাবুলেই আছে আইএস-এর সঙ্গে। উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে ইসলামিক স্টেট অফ সিরিয়া অ্যান্ড লেবন্ত যখন মসুল দখল করেছিল তখন কেরলের মলপ্পুরম, কাসাগোড় এবং কন্নুর থেকে বহু কট্টরপন্থী মনোভাবাপন্ন যুবক মধ্যপ্রাচ্যে গিয়ে আইএসআইএস-এ যোগ দেয়।

সেই জঙ্গিদের অনেকেই নঙগড়হার চলে আসে এবং পরবর্তীতে আইএসকেপি নামক সংগঠনে যোগ দেয়। এদিকে ভারতের গোয়েন্দেদারে আশঙ্কা, এই কেরলবাসী জঙ্গিদের ব্যবহার করে ভারতে হামলা চালানোর ছক কষতে পারে আইএস। এদিকে অপর একটি ঘটনায় ২৬ অগস্ট কাবুলে অবস্থিত তুর্কমেনিস্তানের দূতাবাসের সামনে থেকে বিপুল পরিমাণের বিস্ফোরক সমেত গ্রেফতার করা হয় দুই পাকিস্তানিকে। যদিও এই বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে তালিবান।

এদিন আজ সকালে পূর্ব আফগানিস্তানের নঙগড়হারে ড্রোন অভিযান চালিয়ে কাবুল বিমানবন্দরের হামলার মূল চক্রীকে খতম করেছে বলে দাবি করেছে আমেরিকা। বৃহস্পতিবার কাবুল বিমানবন্দরের কাছে দুটি আত্মঘাতী বিস্ফোরণে ১৬৯ জন আফগান নাগরিক ও ১৩জন মার্কিন সেনার মৃত্যু হয়। যার দায় নেয় আইএস-কে জঙ্গি গোষ্ঠী। মার্কিন গোয়েন্দা সূত্রে জানিয়েছে, ফের কাবুলে হামলা চালাতে পারে জঙ্গিরা।

বন্ধ করুন