বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ১৬ বছরের কিশোরকে অপহরণের অভিযোগ রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে

১৬ বছরের কিশোরকে অপহরণের অভিযোগ রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে

রোহিঙ্গাদের ঘরবাড়ি

খবর অনুযায়ী, শুক্রবার সকাল ১০টায় টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের বড়ডেইল পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানান ইউপির ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য নুরুল ইসলাম৷

টেকনাফে রোহিঙ্গা বন্দুকধারীরা এক কিশোরকে অপহরণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে৷ এ সময় অপহরণকারীদের হাত থেকে পালাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আরেক যুবক৷ এর আগে পাঁচ বাংলাদেশিকে অপহরণের সময় তিনজন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পালিয়ে এলেও দুইজনকে অপহরণ করে বন্দুকধারী ‘রোহিঙ্গা'রা৷

ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের খবর অনুযায়ী, শুক্রবার সকাল ১০টায় টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের বড়ডেইল পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানান ইউপির ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য নুরুল ইসলাম৷

‘অপহৃত' আব্দুর রহমান ওরফে আবছার (১৬) ওই এলাকার মোহাম্মদ উল্লাহের ছেলে৷ গুলিবিদ্ধ মোহাম্মদ শরীফ (৩০) একই এলাকার সোনা আলীর ছেলে৷ ইউপি সদস্য সদস্য নুরুল ইসলাম বলেন, সকালে বড়ডেইল পাহাড়ি এলাকায় পানের বরজে কাজ করতে যান আবছার ও শরীফ৷ এ সময় গহীন পাহাড় থেকে একদল ‘রোহিঙ্গা' অস্ত্রধারী অতর্কিতে তাদের ওপর হামলে পড়ে৷

‘এক পর্যায়ে ‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা' কিশোর আবছারকে অস্ত্রের মুখে জিন্মি করে৷ এ সময় শরীফ দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করলে তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে অপহরণকারীরা৷ এতে তিনি গুলিবিদ্ধ হন৷ পরে কিশোর আবছারকে অপহরণ করে নিয়ে যায়৷ স্থানীয়রা গুলিবিদ্ধ শরীফকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে৷ তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা৷’ ঘটনার ব্যাপারে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে বলে জানান এই ইউপি সদস্য৷

টেকনাফ বাহারছড়া পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক নুর মোহাম্মদ বলেন, ‘ঘটনার ব্যাপারে জনপ্রতিনিধিসহ স্থানীয়রা পুলিশকে অবহিত করেছেন৷ খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পুলিশের একটি দলকে পাঠানো হয়েছে৷’ গত ২৯ সেপ্টেম্বর পাঁচ জন স্থানীয় বাংলাদেশিকে অপহরণের সময় তিনজন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পালিয়ে এলেও দুই জনকে অপহরণ করে ‘রোহিঙ্গা' অস্ত্রধারীরা৷ পরে অপহৃত দুইজন ‘মুক্তিপণ দিয়ে' ছাড়া পান৷

(বিশেষ দ্রষ্টব্য: প্রতিবেদনটি ডয়চে ভেলে থেকে নেওয়া হয়েছে। সেই প্রতিবেদনই তুলে ধরা হয়েছে। হিন্দুস্তান টাইমস বাংলার কোনও প্রতিনিধি এই প্রতিবেদন লেখেননি।)

বন্ধ করুন