বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'দুর্গা মণ্ডপে হামলা পূর্বপরিকল্পিত', কড়া শাস্তির হুঁশিয়ারি বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর
ফাইল ছবি, সৌজন্যে ইসকন
ফাইল ছবি, সৌজন্যে ইসকন

'দুর্গা মণ্ডপে হামলা পূর্বপরিকল্পিত', কড়া শাস্তির হুঁশিয়ারি বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

  • সহিংসতার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানান বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

বাংলাদেশে বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনা ঘটে আসছে। গত বুধবার অষ্টমীর রাতে কুমিল্লা থেকে এই সহিংসতার সূত্রপাত। এরপর থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় ছড়িয়ে পড়েছে হিংসার আগুন। রাজধানী ঢাকার রাস্তাতেও হিংসার ঘটনা ঘটে। এই পরিস্থিতিতে এবার বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান মেনে নিলেন, এই হিংসার ঘটনা পূর্বপরিকল্পিত ছিল। পাশাপাশি এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

রবিবার সাংবাদিকদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'অনেক কিছু দেখে অনেক কিছু অনুমান করেছি। এখন আমরা শুধুমাত্র প্রমাণের অপেক্ষায় আছি। আমদের হাতে প্রমাণ এলেই আপনাদের সামনে তা তুলে ধরা হবে। আমরা নিশ্চিত যে এই সহিংসতার ঘটনা উদ্দেশ্য প্রণোদিত। এই হামলা হামলা পূর্বপরিকল্পিত। পরিস্থিতি অস্থির করে তুলতে এবং সম্প্রীতির পরিবেশ নষ্ট করতেই এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে। আমাদের দেশের মানুষ ধর্মভীরু হতে পারে কিন্তু তারা ধর্মান্ধ নয়।'

এদিকে গত শুক্রবার জুম্মার নমাজের পর ঢাকায় সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষের ঘটনায় বাংলাদেশ পুলিশ তিনটি থানায় পৃথক মামলায় ৪ হাজারেরও বেশি অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিকে অভিযুক্ত করেছে। পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে ভাঙচুর, নিরাপত্তাকর্মীদের মারধর এবং বাধা দেওয়ার অভিযোগ আনে। ঢাকার পল্টন, রমনা, চকবাজার থানায় এই অভিযোগ দায়ের করা হয়। উল্লেখ্য, দুর্গাপুজোর সময় সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনা ঘটে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে। এই আবহে মুসলিমদের পবিত্র ধর্ম গ্রন্থ কোরআন শরিফের অপমানের অভিযোগ এনে হামলা চালানো হয় দুর্গাপুজো মণ্ডপে। এরপর ঢাকাতেও বহু মানুষ ইসলাম ধর্মের অপমানের অভিযোগ এনে রাস্তায় নামে। এই আবহে ঢাকার কাকরাইল মোড়ে সংঘর্ষ বাধে পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে।

বন্ধ করুন