প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ফাইল ছবি (AFP)
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ফাইল ছবি (AFP)

বিরল অসুখের চিকিত্সায় ১৫ লক্ষ টাকা দেবে মোদী সরকার

  • বিরল অসুখ নীতিতে অনুদানের টাকা থেকে গরিব মানুষের চিকিৎসার প্রস্তাব

ক্যান্সারের মতো মারণ ব্যাধির চিকিৎসায় ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত দেবে কেন্দ্র। সোমবার কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকাশিত খসড়া বিরল ব্যাধি নীতিতে এমনই প্রস্তাব করা হয়েছে। এই প্রকল্পের অধীনে কোনও ব্যক্তি, বিরল ব্যাধির চিকিৎসায় এক বার ১৫ লক্ষ টাকার চিকিৎসা করাতে পারবেন। তবে এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন শুধুমাত্র দারিদ্রসীমার নীচে থাকা মানুষরাই।

সরকারের দাবি, এই নীতি কার্যকর হলে দেশের ৪০ শতাংশ মানুষ উপকৃত হবেন। ইতিমধ্যে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের মাধ্যমে হাসপাতালে ভর্তিতে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিমার সুবিধা দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাছাড়া রয়েছে প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য প্রকল্প। তার সঙ্গে যোগ হবে এই প্রকল্প।

এই প্রকল্পের অধীনে চিকিৎসা করানোর জন্য দেশের কয়েকটি খ্যাতনামা হাসপাতালকে চিহ্নিত করবে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। এর মধ্যে থাকতে পারে দিল্লির এইমস, মওলানা আজাদ মেডিক্যাল কলেজ, লখনউয়ের সঞ্জয় গান্ধী ইন্সটিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস, চণ্ডীগড়ের ইন্সটিটিউট অফ মেডিক্যাল এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ। অনুদানের টাকায় এই প্রতিষ্ঠানগুলিতে গরিব মানুষের চিকিৎসা হবে বলে প্রস্তাবে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিরল রোগের তালিকায় রাখা হয়েছে লাইজোসোমাল স্টোরেজ ডিজঅর্ডার, ইমিউন ডেফিসিয়েন্সি, স্পাইনাল মাসকুলার অ্যাটরফি, হুরলার সিনড্রোম এবং দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা প্রয়োজন হয় এমন স্ত্রীরোগ।

এই প্রকল্পের টাকা জোগাড় করার জন্য সরকার করপোরেট সরকারের থেকে অনলাইনে অনুদান নেবে। সেজন্য বিশেষ ব্যবস্থা তৈরি করবে কেন্দ্র।

বন্ধ করুন