বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > অরুণাচল সীমান্তে পৌঁছে গেল চিন! তিব্বতের প্রত্যন্ত এলাকায় তৈরি টানেলসহ হাইওয়ে
তিব্বতের প্রত্যন্ত এলাকায় রাস্তা নির্মাণ সম্পন্ন করল চিন
তিব্বতের প্রত্যন্ত এলাকায় রাস্তা নির্মাণ সম্পন্ন করল চিন

অরুণাচল সীমান্তে পৌঁছে গেল চিন! তিব্বতের প্রত্যন্ত এলাকায় তৈরি টানেলসহ হাইওয়ে

  • অরুণাচলপ্রদেশের খুব কাছেই তিব্বতের প্রত্যন্ত এলাকায় রাস্তা নির্মাণ সম্পন্ন করল চিন।

অরুণাচলপ্রদেশের খুব কাছেই তিব্বতের প্রত্যন্ত এলাকায় রাস্তা নির্মাণ সম্পন্ন করল চিন। চিনের তৈরি এই হাইওয়েত একটি ২ কিলোমিটার দীর্ঘ টানেলও রয়েছে। ভারত সীমান্তের এত কাছে এই রাস্তা নির্মাণের উদ্দেশ্য ঘিরে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠতে শুরু হয়েছে। এই রাস্তার জেরে সীমান্ত সুরক্ষার দিক থেকে ভারত বড় চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হতে পারে ভবিষ্যতে।

চিনের এই হাইওয়েটি বিশ্বের গভীরতম খাদ ইয়ারলুঙ জ্যাংবো গ্র্যান্ড ক্যানিয়নের মধ্য দিয়ে গিয়েছে। চিনের বাইবুং কাউন্টি থেকে শুরু হয়ে এই হাইওয়েটি ভারতীয় সীমান্তে অবস্থিত বিষিং গ্রামের কাছে এসে শেষ হচ্ছে। বিষিং অরুণাচল প্রদেশের আপার সিয়াং জেলায় চিন সীমান্তের কাছে অবস্থিত। এটি গেলিং সার্কেলে অবস্থিত। যা আক্ষরিক অর্থে ম্যাকমোহন লাইনকে ছুঁয়ে যায়।

উল্লেখ্য, অরুণাচলপ্রদেশকে চিন ভারতের অংশ হিসেবে মানে না। তাদের দাবি, অরুণাচল নাকি দক্ষিণ তিব্বত। এই আবহে চিন এই রাস্তা অরুণাচলপ্রদেশের গা ঘেঁষে নির্মাণ করায় অস্বস্তি বেড়েছে ভারতের। চিনের পরিকল্পনা প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর হাইওয়ে নির্মাণের। এই পরিকল্পনার অধীনেই নতুন এই হাইওয়ে নির্মাণ করেছে চিন। এই রাস্তার জেরে চিন সীমান্ত থেকে নিকটতম শহরের ভ্রমণের সময় ৮ ঘণ্টা কমিয়ে দেবে।

এদিকে এই হাইওয়ে তিব্বতের বিশাল বাঁধ নির্মাণের ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা পালন করবে। ব্রহ্মপুত্র নদে তৈরি হবে বাঁধটি। তিব্বতে ব্রহ্মপুত্র ইয়ারলং সাংপো নামে পরিচিত৷ আরও দুটি প্রজেক্টের পরিকল্পনা রয়েছে এই নদীর উপর৷ তাছাড়া ছ'টি বাঁধের কাজ চলছে এই এলাকায়৷ বিশেষজ্ঞদের মতে, দক্ষিণ এশিয়ার অধিকাংশ জলসরবরাহের উৎসের উপরে কড়া নিয়ন্ত্রণ রাখার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে চিন। চিনের বাঁধ তৈরির চেষ্টার প্রতিক্রিয়ায় ব্রহ্মপুত্রের জল ধরে রাখতে ভারতও ওই নদের উপরে আরেকটি বাঁধ তৈরির পরিকল্পনা করছে।

বন্ধ করুন