বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‌করোনা মুক্ত হওয়ার ৩ মাস পর নেওয়া যাবে টিকা, ঘোষণা কেন্দ্রের
বেঙ্গালুরুতে টিকা নিচ্ছেন এক তরুণী। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
বেঙ্গালুরুতে টিকা নিচ্ছেন এক তরুণী। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

‌করোনা মুক্ত হওয়ার ৩ মাস পর নেওয়া যাবে টিকা, ঘোষণা কেন্দ্রের

কংগ্রেসের অভিযোগ, হাতে পর্যাপ্ত টিকা নেই। সেজন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাস মুক্ত হওয়ার তিন মাস পর ভ্যাকসিন মিলবে। বুধবার এই কথাই জানাল কেন্দ্রীয় সরকার। এমনকী প্রথম ডোজ নেওয়ার পর যাঁরা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁরাও তিন মাস পর টিকা নিতে পারবেন। এর আগে ঠিক ছিল, করোনা থেকে সেরে ওঠার ৪৫ দিন পর ভ্যাকসিন নেওয়া যাবে। এবার সেই ব্যবধানও বাড়িয়ে দেওয়া হল।

এর আগে কোভিশিল্ডের ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রে প্রথম ডোজ নেওয়ার পর দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ক্ষেত্রে সময়সীমা বাড়ায় কেন্দ্র। আগে দুটি ডোজের মধ্যে ব্যবধান ছিল ৬ থেকে ৮ সপ্তাহ।এবার সেই ব্যবধান করা হয়েছে ১২ থেকে ১৬ সপ্তাহ। কিন্তু কেন্দ্রের নির্দেশিকা অনুযায়ী, কোভ্যাক্সিন নেওয়ার ক্ষেত্রে দুটি ডোজের মধ্যে ব্যবধানের সময়সীমার কোনও বদল করা হয়নি।

এনিয়ে সরকার তিন মাসেে দ্বিতীয়বার দুটি ভ্যাকসিন ডোজের ব্যবধানের সময়সীমা বাড়াল।যা নিয়ে সমালোচনায় সরব হয়েছে কংগ্রেস। কংগ্রেসের দাবি, দেশে যেহেতু ভ্যাকসিনের ঘাটতি রয়েছে। সেই ভ্যাকসিনের ঘাটতি সামাল দিতেই দুটি ডোজের মধ্যে টিকা নেওয়ার ব্যবধানের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে, প্রথম ডোজ নেওয়ার পর দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার জন্য হন্যে হয়ে ঘুরে বেড়াতে হচ্ছে মানুষকে। এমন অবস্থায় কেন্দ্রের তরফে দ্বিতীয় ডোজের ওপর জোর দেওয়া হলেও টিকার ঘাটতি মিটছে না। ওয়াকিবহল মহলের মতে, দেশে যে পরিমাণে পর্যাপ্ত টিকার জোগানের প্রয়োজন, সেই তুলনায় খুবই কম পরিমাণে টিকা আছে। সেই কারণে কেন্দ্রকে বারবার টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে নির্দেশিকা পাল্টাতে হচ্ছে।

বন্ধ করুন