বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Covid in Cruise: ফের কোভিডের দানবীয় হানা! ক্রুজের মধ্যে ৮০০ জন পজিটিভ হতেই শুরু পদক্ষেপ

Covid in Cruise: ফের কোভিডের দানবীয় হানা! ক্রুজের মধ্যে ৮০০ জন পজিটিভ হতেই শুরু পদক্ষেপ

অস্ট্রেলিয়ার ক্রুজে ৮০০ জনের কোভিড। প্রতীকী ছবি।   REUTERS/Alexandre Meneghini/File Photo (REUTERS)

অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছে, সেদেশের কোভিড নীতি সমানভাবে পালন করা হচ্ছে। তবে ‘কার্নিভাল অস্ট্রেলিয়াল ম্যাজেস্টিক প্রিন্সেস’ ক্রুজে এমনভাবে ৮০০ জনের কোভিড হওয়ার ঘটনা নিয়ে রীতিমতো তোলপাড় শুরু হয়েছে। সেদেশের প্রশাসন জানিয়েছে, এতে ঝুঁকির পরিমাণ, ‘টিয়ার থ্রি’ পরিস্থিতিতে রয়েছে।

আরও একবার কোভিডের হানার আতঙ্ক গ্রাস করতে শুরু করল। সদ্য অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে একটি ক্রুজ নোঙর করেছে। আর সেখানে ৮০০ জনের দেহে দানা বেঁধেছে কোভিড। একই ক্রুজের মধ্যে ৮০০ জনের কোভিড হওয়ার ঘটনা নিয়ে রীতিমতো চাঞ্চল্য শুরু হয়েছে অস্ট্রেলিয়ায়।

যদিও অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছে, সেদেশের কোভিড নীতি সমানভাবে পালন করা হচ্ছে এই ঘটনার পর। তবে ‘কার্নিভাল অস্ট্রেলিয়াল ম্যাজেস্টিক প্রিন্সেস’ ক্রুজে এমনভাবে ৮০০ জনের কোভিড হওয়ার ঘটনা নিয়ে রীতিমতো তোলপাড় শুরু হয়েছে। সেদেশের প্রশাসন জানিয়েছে, এতে ঝুঁকির পরিমাণ, ‘টিয়ার থ্রি’ পরিস্থিতিতে রয়েছে। ফলে এই ক্রুজ থেকে ভয়ানকভাবে কোভিড ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন তাঁরা। এই ঘটনার কথা সামনে আসতেই ২০২০ সালে রুবি প্রিন্সেস ক্রুজ শিপে এমনই এক ভয়ানকভাবে কোভিড ছড়িয়ে পড়েছিল। ক্রুজের সমস্ত যাত্রী ও ক্রিউ কোভিডের ছায়ায় আসেন। তারফলে ২৮ জনের মৃত্যুও হয়েছিল সেবার। 

সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে অনুপস্থিতির সম্ভাবনা রাহুল গান্ধীর! নেপথ্যে কোন কারণ?

অস্ট্রেলিয়ার প্রশাসন জানিয়েছে, ‘কার্নিভাল অস্ট্রেলিয়াল ম্যাজেস্টিক প্রিন্সেস’ ক্রুজের ক্ষেত্রে সন্তর্পণে তাঁরা পদক্ষেপ নিচ্ছেন। অস্ট্রেলিয়ার স্থানীয় স্বাস্থ্যকর্মীরা ক্রুজের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। প্রতিটি রোগীর চিকিৎসার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সাহায্য সরবরাহ করছেন। জানা গিয়েছে, কোভিড রোগীদের আলাদা করে রাখা হচ্ছে। ফলে কোনও মতেই যাতে কোভিড না ছড়ায় তার বন্দোবস্তে কড়া নজর রয়েছে প্রশাসনের। উল্লেখ্য, এই ক্রুজের ঘটনা যখন সামনে এসেছে, তখন অস্ট্রেলিয়ায় ব্যাপক আকারে ছড়াচ্ছে কোভিড। মূলত, ওমিক্রনের এক্সবিবি ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে যাচ্ছে দে জুড়ে। সেই থেকেই এমন করোনার প্রকোপ অস্ট্রেলিয়ায় বলে মনে করা হচ্ছে। আপাতত গোটা ঘটনাকে নজরে রেখেছে সেদেশের সরকার। 

 

 

 

 

বন্ধ করুন