বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Cyrus Mistry Death: ডিভাইডারে ধাক্কা গাড়ির, মৃত্যু Tata Sons-র প্রাক্তন চেয়ারম্যান সাইরাস মিস্ত্রির
দুর্ঘটনায় মৃত্যু সাইরাস মিস্ত্রির। 

Cyrus Mistry Death: ডিভাইডারে ধাক্কা গাড়ির, মৃত্যু Tata Sons-র প্রাক্তন চেয়ারম্যান সাইরাস মিস্ত্রির

  • Cyrus Mistry Death: পালঘরের পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, পালঘরের চারোটিতে সূর্য নদীর উপর একটি সেতুতে সেই দুর্ঘটনা ঘটেছে। একটি ডিভাইডারে ধাক্কা মারে তাঁর গাড়ি। দুর্ঘটনাস্থলের ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে, কালো মার্সিডিজ গাড়ির সামনের অংশ পুরোপুরি দুমড়ে-মুচড়ে গিয়েছে।

পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল টাটা সনসের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সাইরাস মিস্ত্রির। তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৪। আমদবাদ থেকে মুম্বইয়ে ফেরার পথে মহারাষ্ট্রের পালঘরে তাঁর গাড়ি ডিভাইডারে ধাক্কা মারে। দুর্ঘটনায় টাটা সনসের প্রাক্তন চেয়ারম্যান-সহ দু'জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন দু'জন।

পালঘরের পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, গুজরাটের আমদাবাদ থেকে মুম্বইয়ে ফিরছিলেন টাটা সনসের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সাইরাস। দুপুর তিনটে ১৫ মিনিট নাগাদ পালঘরের চারোটিতে সূর্য নদীর উপর সেতুর ডিভাইডারে ধাক্কা মারে সাইরাসের মার্সিডিজ। গাড়িতে মোট চারজন ছিলেন। মৃত্যু হয় টাটা সনসের প্রাক্তন চেয়ারম্যান-সহ দু'জনের। আহত হয়েছেন টাটা সনসের প্রাক্তন চেয়ারম্যানের গাড়ির চালক-সহ দু'জন। তাঁদের গুজরাটের হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। তারইমধ্যে পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: PM Modi on Cyrus Mistry Death: 'মর্মান্তিক, শিল্পের দুনিয়ায় বড় ক্ষতি', সাইরাস মিস্ত্রির প্রয়াণে শোকার্ত মোদী

দুর্ঘটনাস্থলের ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে, কালো মার্সিডিজ গাড়ির সামনের অংশ পুরোপুরি দুমড়ে-মুচড়ে গিয়েছে। সামনের চাকার দুমড়ে গিয়েছে। গাড়ির ভিতরের এয়ারব্যাগ যে খুলেছিল, তা গাড়ির ভিতরের ভিডিয়ো দেখে বোঝা যাচ্ছে। গাড়ির ভিতরে সেরকম কোনও বড়সড় ক্ষতি না হলেও গাড়ির সামনের অংশ পুরো দুমড়ে-মুচড়ে গিয়েছে।

কতদিন টাটা সনসের চেয়ারম্যান ছিলেন?

টাটা পদবি ছাড়া দ্বিতীয় কোনও ব্যক্তি হিসেবে টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান হয়েছিলেন। রতন টাটা দায়িত্ব ছাড়ার পর ২০১২ সালে টাটা গ্রুপের শীর্ষ পদে বসেছিলেন। ২০১৬ সালের অক্টোবর পর্যন্ত টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান ছিলেন সাইরাস মিস্ত্রি। তবে টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান হিসেবে সাইরাস মিস্ত্রির কার্যকালের শেষটা মধুর হয়নি। তাঁকে আচমকা সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। তারপর টাটা সনসের এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন এন চন্দ্রশেখরণ।

তারইমধ্যে টাটা সনসের চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া নিয়ে আইনি পথে হেঁটেছিলেন সাইরাস মিস্ত্রি। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ন্যাশনাল কোম্পানি ল অ্যাপ্লিলেট ট্রাইবুনালের রায় খারিজ করে দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। ট্রাইবুনাল রায় দিয়েছিল, সাইরাস মিস্ত্রিকে টাটা সনসের চেয়ারম্যান হিসেবে পুনর্বহাল করতে হবে। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ পিটিশন দাখিল করেছিলেন সাইরাস মিস্ত্রি। তা খারিজ করে দিয়েছিল শীর্ষ আদালত।

শোকস্তব্ধ শিল্পমহল

সাইরাস মিস্ত্রির প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, 'সাইরাস মিস্ত্রির অকাল প্রয়াণের ঘটনা অত্যন্ত মর্মান্তিক। উনি অত্যন্ত প্রতিভাবান শিল্পপতি ছিলেন। যিনি ভারতের অর্থনৈতিক ক্ষমতায় বিশ্বাসী ছিলেন। তাঁর প্রয়াণে বাণিজ্য এবং শিল্পের দুনিয়ায় বড়সড় ক্ষতি হয়ে গেল। তাঁর পরিবার এবং বন্ধুদের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।'

আরও পড়ুন: Who is Cyrus Mistry: Tata Group-র চেয়ারম্যান হিসেবে বিরল নজির, আইনি লড়াই - কে ছিলেন সাইরাস মিস্ত্রি?

শোকপ্রকাশ করেছেন আরপিজি এন্টারপ্রাইজসের চেয়ারম্যান হর্ষ গোয়েঙ্কাও। তিনি বলেন, 'দুর্ঘটনায় সাইরাস মিস্ত্রির প্রয়াণের মর্মান্তিক খবরে অত্যন্ত দুঃখিত। উনি বন্ধু ছিলেন, ভদ্র মানুষ ছিলেন। খুব ভালো মনের মানুষ ছিলেন। বিশ্বে শাপুরজি পালোনজির পরিচিত বাড়ানোর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন এবং অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে টাটা গ্রুপের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি।'

বন্ধ করুন