বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নয়া বছরে ৬৫,০০০ টাকা ছুঁতে পারে সোনা, রুপো হতে পারে ৯০,০০০ টাকা
নয়া বছরে ৬৫,০০০ টাকা ছুঁতে পারে সোনা, রুপো হতে পারে ৯০,০০০ টাকা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
নয়া বছরে ৬৫,০০০ টাকা ছুঁতে পারে সোনা, রুপো হতে পারে ৯০,০০০ টাকা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

নয়া বছরে ৬৫,০০০ টাকা ছুঁতে পারে সোনা, রুপো হতে পারে ৯০,০০০ টাকা

  • গত বছর সোনার দাম প্রায় ২৭ শতাংশ বেড়েছিল।

প্রবল ঝড়-ঝাপটার মধ্যে গত বছরে সোনা ও রুপোর দাম অনেকটা বেড়েছে। নয়া বছরেও বজায় থাকবে সেই ধারা। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, চলতি বছর ১০ গ্রাম সোনার দর ৬৫,০০০ টাকায় পৌঁছে যেতে পারে। এক কেজি রুপোর দর তো ৯০,০০০ টাকার গণ্ডি ছুঁয়ে ফেলতে পারে।

গত বছর সোনার দাম প্রায় ২৭ শতাংশ বেড়েছিল। রুপোর ক্ষেত্রে সেই উত্থান আরও বেশি ছিল। করোনাভাইরাস জর্জরিত বছরে রুপোর দাম বেড়েছিল প্রায় ৫০ শতাংশ। গত অগস্টে ১০ গ্রাম সোনার দাম রেকর্ড ৫৬,২০০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছিল। সেই মাসেই এক কেজি রুপোর দর প্রায় ৮০,০০০ টাকার কাছে ছিল। করোনা টিকা সংক্রান্ত আশার মধ্যে সেই দাম খানিকটা কমলেও নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে বাজারেও আবারও অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে।

আইসিআইসিআই সিকিউরিটিজের বিশেষজ্ঞদের মতে, বিশ্বজুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। তার জেরে অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্নচিহ্ন তৈরি হয়েছে। ফলে সুরক্ষিত সম্পত্তি হিসেবে সোনার গুরুত্ব আরও বেড়েছে। তার জেরে নয়া বছরে ১০ গ্রাম সোনার দাম ৬৫,০০০ টাকার দিকে অগ্রসর হতে পারে। সংস্থার তরফে বলা হয়েছে, ‘পাশাপাশি বড় অঙ্কের আর্থিক প্যাকেজের ফলে বুলিয়নের মতো সুরক্ষিত সম্পত্তিতে লগ্নি বাড়ছে।'

রুপোর ক্ষেত্রেও একইরকম উত্থান জারি থাকবে। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, নয়া বছরে এক কেজি রুপোর দাম ৯০,০০০ টাকার দিকে যেতে পারে। আইসিআইসিআই সিকিউরিটিজের তরফে জানানো হয়েছে, বিশ্বজুড়ে সৌর প্যানেল, বৈদ্যুতিন সরঞ্জামের মতো রুপো নির্ভর পরিবেশ-বান্ধব প্রযুক্তিতে লগ্নি বাড়ছে। অন্যদিকে, ডলার (ব্রড-বেসড ডলার) দুর্বল হয়ে পড়ার ফলে অন্য মুদ্রাধারীদের কাছে সস্তা হচ্ছে রুপো।  

বন্ধ করুন