বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শুক্রবারও সস্তা হল সোনা, রেকর্ডের থেকে দাম ১১,০০০ টাকা কম
শুক্রবারও সস্তা হল সোনা, রেকর্ডের থেকে দাম ১১,০০০ টাকা কম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
শুক্রবারও সস্তা হল সোনা, রেকর্ডের থেকে দাম ১১,০০০ টাকা কম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

শুক্রবারও সস্তা হল সোনা, রেকর্ডের থেকে দাম ১১,০০০ টাকা কম

  • সপ্তাহের শেষ কর্মদিবসেও ভারতীয় বাজারে কমল সোনা এবং রুপোর দাম।

সপ্তাহের শেষ কর্মদিবসেও ভারতীয় বাজারে কমল সোনা এবং রুপোর দাম। এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.১ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৪৪,৯০৪ টাকা। রুপোর পতন আরও বেশি। এক কেজি রুপোর দাম এক শতাংশ কমে হয়েছে ৬৭,১০০ টাকা।

গত সেশনে সোনার দাম ০.৩ শতাংশ বেড়েছিল। আর ০.৭ শতাংশ উত্থানের সাক্ষী ছিল রুপো। এইচডিএফসি সিকিউরিটিজের তরফে জানানো হয়েছে, এমসিএক্স সূচকে ৪৫,২০০ বা ৪৫,৬০০ টাকায় বাধা পাবে ১০ গ্রাম সোনা। আর সহায়তা পাবে ৪৪,১০০ টাকায়। আপাতত সোনার দাম রেকর্ড দরের থেকে ১১,০০০ টাকার মতো কম আছে। গত বছরের ৭ অগস্ট ভারতীয় বাজারে ১০ গ্রাম সোনার দর রেকর্ড ৫৬,২০০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছিল। তারপর থেকে সোনার দাম অনেকটা নীচে নেমে গিয়েছে। চলতি বছরেও সোনার দাম অনেকটা কমেছে।

বিশ্ব বাজারেও সোনার দাম পড়েছে। এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম ০.৪ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১,৭৩০.০৬ ডলার। গত সেশনেও কমেছিল সোনা। সেইসময় ০.৫ শতাংশ পতনের সাক্ষী ছিল হলুদ ধাতু। ডলার সূচক বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯১.৮৮২। তার ফলে অন্যান্য মুদ্রাধারীদের কাছে সোনার দাম বেড়েছে। জিয়োজিত্‍ ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের তরফে জানানো হয়েছে, এক আউন্স সোনার দাম ১,৭৪৫ ডলারের নিচে থাকার ফলে উত্থান-পতনের প্রবণতা বজায় থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে। এক আউন্সের দাম ১,৬৬০ ডলারের নিচে নেমে গেলে হলুদ ধাতুর বড়সড় পতন হবে। ১,৭৬০ ডলারে পৌঁছালে আবারও উর্ধ্বমুখী হবে সোনা। অন্যান্য মূল্যবান ধাতুর মধ্যে রুপো এবং হিরের দাম পড়েছে। এক আউন্স রুপোর দাম ০.৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ২৫.৮৯ ডলার।

বন্ধ করুন