বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ৬৩ দিন পর সক্রিয় করোনা আক্রান্ত ৭ লাখের নীচে, ১০ কোটি পরীক্ষার নজির ভারতের
মাস্ক পরেই চলছে পুজোর আড্ডা (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
মাস্ক পরেই চলছে পুজোর আড্ডা (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

৬৩ দিন পর সক্রিয় করোনা আক্রান্ত ৭ লাখের নীচে, ১০ কোটি পরীক্ষার নজির ভারতের

  • দৈনিক নয়া আক্রান্তের সংখ্যায় হ্রাস এবং সুস্থতার সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার সৌজন্যে দেশে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ পড়ছে।

পশ্চিমবঙ্গে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়লেও ভারতের করোনাভাইরাসের ছবিটা ক্রমশ উজ্জ্বল হচ্ছে। চলতি সপ্তাহে দেশে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা হুড়মুড়িয়ে কমে সাত লাখের নীচে নেমে গেল। দু'মাসের বেশি সময় পরে আবারও সেই নজির তৈরি হল।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শুক্রবার সকাল আটটা পর্যন্ত দেশে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৯৫,৫০৯। ৬৩ দিন পর আবারও দেশে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা সাত লাখের কম নীচে রয়েছে। গত ২২ অগস্ট দেশে ৬৯৭,৩৩০ জনের শরীরে করোনা ছিল। চলতি সপ্তাহের গোড়া থেকেই লাগাতার সেই সংখ্যা কমছে। মঙ্গলবার সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৭৪৮,৫৩৮। বুধবার এবং বৃহস্পতিবার তা কমে দাঁড়ায় যথাক্রমে ৭৪০,০৯০ এবং ৭১৫,৮১২। 

দৈনিক নয়া আক্রান্তের সংখ্যায় হ্রাস এবং সুস্থতার সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার সৌজন্যে দেশে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ পড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৪,৩৩৬ জন নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। টানা পাঁচদিন দেশে ৬০,০০০ জনের কম করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সবমিলিয়ে অবশ্য আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭,৭৬১,৩১২। তবে প্রায় ৯০ শতাংশ আক্রান্তই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। আপাতত দেশে ৬,৯৪৮,৪৯৭ জন (৮৯.৫৩ শতাংশ) করোনা যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সেরে উঠেছেন ৭৩,৯৭৯ জন। সেই সময় ৬৯০ জন মারা যাওয়ার মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িযেছে ১১৭,৩০৬। অর্থাত্‍ দেশে আপাতত সক্রিয় আক্রান্তের হার ৮.৯৬ শতাংশ।

তারইমধ্যে করোনা পরীক্ষার নিরিখে একটি বড়সড় মাইলস্টোন পার করেছে ভারত। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ১৪.৫ লাখ (১,৪৪২,৭২২) নমুনা পরীক্ষা হওযার দেশে ১০ কোটি (১০,০,১১৩,০৮৫) টেস্টের গণ্ডি পেরিয়ে গিয়েছে। গত ন'দিনেই এক কোটি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

বন্ধ করুন