বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > IT রিটার্নসের সময় বাড়তি সুদ বা লেট ফি দিতে হয়েছে? ফেরত পাবেন সেই টাকা
এমনিতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আয়কর রিটার্নস ফাইলের সময়সীমা ৩১ জুলাই থেকে বাড়িয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর করাা হয়েছে। (ছবিটি প্রতীকী)
এমনিতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আয়কর রিটার্নস ফাইলের সময়সীমা ৩১ জুলাই থেকে বাড়িয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর করাা হয়েছে। (ছবিটি প্রতীকী)

IT রিটার্নসের সময় বাড়তি সুদ বা লেট ফি দিতে হয়েছে? ফেরত পাবেন সেই টাকা

  • কীভাবে জেনে নিন।

সফটওয়ারের ত্রুটিতে আয়কর রিটার্নসের সময় বাড়তি সুদ বা লেট ফি দিতে হয়েছে? গত অর্থবর্ষের (২০২০-২১) রিটার্নস জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে যে করদাতাদের এমন সমস্যার মুখে পড়তে হয়েছে, তাঁদের সেই বাড়তি টাকা ফিরিয়ে দেবে আয়কর দফতর।

এমনিতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আয়কর রিটার্নস ফাইলের সময়সীমা ৩১ জুলাই থেকে বাড়িয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর করা হয়েছে। তবে করদাতাদের একাংশের অভিযোগ ছিল, ৩১ জুলাইয়ের পর রিটার্নস জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে লেট ফি কেটে নেওযা হচ্ছে। দিতে হয়েছে বাড়তি সুদ। নয়া e-filing portal 2.0 চালু হওয়ার পর খোদ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ইনফোসিসকে বিষয়টি দেখার জন্য বলেছিলেন। তাও দিনকয়েক আগেই চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টদের একাংশের অভিযোগ ছিল, প্রথম থেকেই সেই সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছিল। বারবার অভিযোগ সত্ত্বেও তা ঠিক করা হয়নি। 

সেই পরিস্থিতিতে বুধবার আয়কর দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, রিটার্নস জমা দেওয়ার সফটওয়ারে যে ত্রুটি ছিল, তা গত ১ অগস্ট শুধরে দেওয়া হয়েছে। এখন যাঁরা আইটি রিটার্নস ফাইল করবেন, তাঁদের সফটওয়ারের নয়া ভার্সন ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছে আয়কর দফতর। অনলাইনেও আইটি রিটার্নস জমা দেওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে।

আয়কর দফতরের তরফে বলা হয়েছে, ‘কেউ যদি কোনওভাবে ভুল সুদ বা লেট ফি-সহ ইতিমধ্যে আইটি রিটার্নস ফাইল করে থাকেন, তাহলে সিপিসি-আইটিআর সেন্ট্রালাইজড প্রসেসিং সেন্টার-ইনকাম ট্যাক্স রিটার্নস) প্রক্রিয়ার সময় তা ঠিক করে দেওযা হবে। যদি কোনও বাড়তি টাকা দিয়ে থাকতে হয়, তাহলে স্বাভাবিক সেই অর্থ ফিরিয়ে দেওয়া হবে।’

বন্ধ করুন