বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আয়ত্তে আসছে না করোনা, এক সপ্তাহ লকডাউন ঝাড়খণ্ড
এক সপ্তাহ লকডাউন ঝাড়খণ্ডে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
এক সপ্তাহ লকডাউন ঝাড়খণ্ডে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

আয়ত্তে আসছে না করোনা, এক সপ্তাহ লকডাউন ঝাড়খণ্ড

আগামী ২২ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

ফের লকডাউন ঘোষণা করা হল ঝাড়খণ্ডে। এবার এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করল ঝাড়খণ্ড সরকার। করোনা সংক্রমণ যেভাবে বাড়ছে, সেই কথা মাথায় রেখেই লকডাউন ঘোষণা করা হল। এর আগে, দিল্লিতেও এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করা হয়।

মঙ্গলবার হেমন্ত সোরেন সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয়, জরুরি পরিষেবা ছাড়া আগামী ২২ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলি খোলা থাকলেও বড় কোনও জমায়েতের অনুমোদন দেওয়া হবে না। তবে খনিতে কাজ করতে যাওয়া, কৃষি ও নির্মাণ কাজের ক্ষেত্রে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩,৯৯২ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫০ জনের। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ২৮,০১০ জন। এই পরিস্থিতিতে করোনা সংক্রমণ যাতে আর হাতের বাইরে না চলে যায়, সেজন্য এক সপ্তাহের লকডাউনের পথে হাঁটল ঝাড়খণ্ড প্রশাসন।

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার কারণে বেশ কিছুদিন থেকেই লকডাউন করার পথেই এগোচ্ছিল ঝাড়খণ্ড সরকার। বেশ কিছু গাইডলাইন ফের চালু করা হয়। শপিং মল, বাজার রাত আটটার পর বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল। পাশাপাশি দশম ও দ্বাদশ শ্রেণি বাদ দিয়ে সব ক্লাসের ছাত্রছাত্রীদের জন্য স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়। অনলাইনে ক্লাস করার কথা জানানো হয়। একইসঙ্গে বড় জমায়েতের ওপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। গত ৮ এপ্রিল থেকেই এই সব কোভিড গাইডলাইন চালু করা হয়। কিন্তু তারপরেও করোনা সংক্রমণের পরিমাণ কমেনি। বরং তা আরও বেড়ে গিয়েছে।ফলে অগত্যাই ঝাড়খণ্ড সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, করোনাকে রুখতে ঝাড়খণ্ডে এক সপ্তাহ লকডাউন রাখা হবে।

বন্ধ করুন