বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Gyanvapi mosque: জ্ঞানবাপী মসজিদ মামলায় নিম্ন আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে HC-তে যাবে মুসলিম পক্ষ
মামলার রায়ের আগে বারাণসী জেলা আদালতে পুলিশের কড়া নিরাপত্তা।

Gyanvapi mosque: জ্ঞানবাপী মসজিদ মামলায় নিম্ন আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে HC-তে যাবে মুসলিম পক্ষ

  • মসজিদ কমিটির পক্ষে আইনজীবী মহম্মদ তৌহিদ খান বলেন, ‘আমাদের কাছে উচ্চ আদালতে যাওয়ার পথ খোলা রয়েছে। আমাদের আইনজীবীদের দল প্রথমে রায়টি খতিয়ে দেখবে। যার ভিত্তিতে আমাদের আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে তা খতিয়ে দেখার পর আমরা উচ্চ আদালতে যাব।’

জ্ঞানবাপী মসজিদ মামলায় বারাণসী জেলা আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে যাবে আঞ্জুমান ইন্তেজামিয়া মসজিদ কমিটি (এআইএমসি)। কমিটির তরফে জানানো হয়েছে, তাদের আইনজীবীদের একটি কমিটি জেলা আদালতের রায় খতিয়ে দেখার পর উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হবেন। উল্লেখ্য, গতকাল জ্ঞানবাপী মসজিদ মামলায় মসজিদ কমিটির আবেদন খারিজ করে দেয় বারাণসী জেলা আদালত। জ্ঞানবাপী মসজিদের ভিতর পুজো-অর্চনা করার অনুমতি চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন ৫ হিন্দু মহিলা। বারাণসী আদালত এদিন স্পষ্ট জানিয়ে দেয় যে, ৫ হিন্দু মহিলার করা সেই আবেদন শোনা হবে। এরপরেই উচ্চ আদালতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মসজিদ কমিটি।

আরও পড়ুন: জ্ঞানবাপী মামলায় খারিজ অঞ্জুমানে ইন্তেজামিয়া কমিটির আবেদন, কী জানাল আদালত?

মসজিদ কমিটির পক্ষে আইনজীবী মহম্মদ তৌহিদ খান বলেন, ‘আমাদের কাছে উচ্চ আদালতে যাওয়ার পথ খোলা রয়েছে। আমাদের আইনজীবীদের দল প্রথমে রায়টি খতিয়ে দেখবে। যার ভিত্তিতে আমাদের আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে তা খতিয়ে দেখার পর আমরা উচ্চ আদালতে যাব।’ এই মামলা অত্যন্ত সংবেদনশীল হওয়ায় গত কয়েকদিন ধরেই আদালত চত্বরে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়। পাশাপাশি, আদালতের রায় বেরনোর আগে উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন সংবেদনশীল এলাকায় সতর্কতা জারি করা হয়। এছাড়াও, জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে হোটেল-লজ গেস্ট হাউসে কারা আসছেন, যাচ্ছেন, তার উপর নজরদারির ব্যবস্থা করে পুলিশ।

এদিন বারাণসী জেলা আদালতের রায়ের পর মুসলিম ধর্মগুরু এবং অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের (এআইএমপিএলবি) প্রবীণ সদস্য খালিদ রশিদ ফারাঙ্গি মাহালি বলেন, ‘আমরা জেলা আদালতের রায়কে সম্মান করি। তবে উচ্চ আদালত ও সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার পথ আমাদের জন্য খোলা রয়েছে।’

বন্ধ করুন