বাড়ি > ঘরে বাইরে > এয়ারপোর্টে চা পান করে কোমায় চলে গেলেন পুতিনের অন্যতম সমালোচক ন্যাভালনি
অ্যালেক্সেই ন্যাভালনি (REUTERS)
অ্যালেক্সেই ন্যাভালনি (REUTERS)

এয়ারপোর্টে চা পান করে কোমায় চলে গেলেন পুতিনের অন্যতম সমালোচক ন্যাভালনি

এই ঘটনার সঙ্গে তারা যুক্ত নয়, বলে দাবি রাশিয়ার সরকারের। 

আমায় মেরে পুতিনের লাভ হবে না, এভাবেই তাঁর জীবিত থাকার রহস্য জানিয়েছিলেন অ্যালেক্সেই ন্যাভালনি। ঠিক একদিন আগে এই কথা বললেও বৃহস্পতিবার সাইবেরিয়ার এক হাসপাতালে গভীর কোমায় আচ্ছন্ন এই সমাজকর্মী। 

বহুবার রাশিয়ার সরকারের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে জেলে গিয়েছেন  ৪৪ বছরের রাজনৈতিক কর্মী। কিন্তু নিজের সমর্থকদের তিনি বলেছিলেন যে তাঁর মৃত্যুতে পুতিনের লাভ হবে না, তাই অত ভয় পাচ্ছেন না। বৃহস্পতিবার সার্বিয়ায় রাজনৈতিক কার্যকলাপ সেরে মস্কোয় আসার পথে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তাঁর সমর্থকদের দাবি, তাঁকে হত্যা করার চেষ্টা করা হয়েছে। এয়ারপোর্ট কাফেতে চা পান করেছিলেন তিনি। এরপর প্লেনে উঠেই তাঁর শরীর খারাপ করতে লাগে। প্লেন তখন এমার্জেন্সি ল্যান্ডিং করে সাইবেরিয়ায় ওমস্ক শহরে। সেখানে তিনি এখন কোমায়। 

ক্রেমলিনের অবশ্য দাবি, তারা এই ঘটনার পিছনে নেই। ন্যাভালনির দ্রুত আরোগ্য কামনা করে রাশিয়া সরকার বলেছে যে সরকার যতটা সম্ভব চেষ্টা করছে। যদিও এতে ভুলছেন না ন্যাভালনির সমর্থকরা যাদের দাবি নিশ্চিত ভাবে চায়ে বিষ মিশিয়ে দেওয়া হয়েছিল। 

 ঠিক কী ভাবে এরকম ভাবে অসুস্থ হয়ে গেলেন তিনি, সেটা চিকিৎসকরাও হলফ করে বলতে পারছেন না। বিভিন্ন সময় জেলে থেকেন ন্যাভালনি। তাঁকে আক্রমণ করার চেষ্টা করেছে সরকার পক্ষের সমর্থকরা। একবার তাঁর চোখে ডাই ছুঁড়ে মারা হয়েছিল। 

গত বছরও  অ্যালার্জির জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ন্যাভালনি। যদিও তাঁর আশংকা ছিল যে কেউ হয়তো বিষ মিশিয়ে দিয়েছে কিছুতে। সেই ভয় এবার হয়তো সত্যি হল। 

 

বন্ধ করুন