বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > এবার জল থেকে মিলবে জ্বালানি, চলবে গাড়ি! রাজধানীর রাস্তায় চালিয়ে দেখাবেন গড়করি
নীতিন গড়করি (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

এবার জল থেকে মিলবে জ্বালানি, চলবে গাড়ি! রাজধানীর রাস্তায় চালিয়ে দেখাবেন গড়করি

  • কেন্দ্রীয় পরিবহণ মন্ত্রী বলেন যে তিনি গ্রিন হাইড্রোজেন চালিত একটি গাড়ি কিনেছেন তিনি। এই গাড়িটি দিল্লির রাস্তায় চালিয়ে দেখাবেন তিনি।

গ্রিন হাইড্রোজেন চালিত গাড়ি কিনেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করি। আবর্জনা থেকে উতপন্ন গ্রিন হাইড্রোজেন দিয়ে গাড়ি চালিয়ে দেশবাসীকে বার্তা দিতে চান নীতিন গড়করি। আর্থিক অন্তর্ভুক্তি সংক্রান্ত ষষ্ঠ জাতীয় শীর্ষ সম্মেলনে ভাষণে দেওয়ার সময় কেন্দ্রীয় পরিবহণ মন্ত্রী বলেন যে তিনি গ্রিন হাইড্রোজেন চালিত এই গাড়িটি দিল্লির রাস্তায় চালিয়ে দেখাবেন। যাতে লোকেরা বিশ্বাস করে যে জল থেকে হাইড্রোজেন পাওয়া সম্ভব। 

মন্ত্রী গ্রিন হাইড্রোজেনকে সম্ভাব্য পরিবহণ জ্বালানী হিসাবে ব্যবহারের পক্ষে সওয়াল করেন এদিন। বলেন, ‘আমি গ্রিন হাইড্রোজেন ব্যবহার করে বাস, ট্রাক এবং গাড়ি চালানোর পরিকল্পনা করেছি। এর জন্য শহরগুলির নিকাশী জল এবং আবর্জনা ব্যবহার করে জ্বালানী তৈরি করা হবে।’ 

গড়করি নাগপুরে ৭ বছর আগে একটি প্রকল্প শুরু করেছিলেন যেখানে নর্দমার জল পুনর্ব্যবহার করা হয়। সে সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে গড়করি বলেন যে এখন নাগপুর তার নর্দমার জল মহারাষ্ট্র সরকারের পাওয়ার প্লান্টে বিক্রি করে এবং বছরে প্রায় ৩২৫ কোটি টাকা আয় করে৷ তিনি বলেন, ‘কিছুই অপচয় করা ঠিক নয়। এটা নির্ভর করে নেতৃত্ব এবং প্রযুক্তির দৃষ্টিভঙ্গির উপর। আপনি বর্জ্যের মধ্যে সম্পদ তৈরি করতে পারেন। এখন আমি চেষ্টা করছি যদি আমরা বর্জ্য জলে মূল্য বাড়াতে পারি। প্রতিটি পৌরসভায় এই জল রয়েছে।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘মানুষকে প্রশিক্ষণ দিন যাতে এই জল থেকে গ্রিন হাইড্রোজেন তৈরি করা যায়। আমাদের বর্জ্য বা সৌর শক্তি থেকে সস্তায় বিদ্যুৎ পাওয়া যেতে পারে। আমরা গ্রিন হাইড্রোজেন উত্পাদন করতে পারলে তা একটি বিকল্প জ্বালানী হতে পারে। এতে সব বাস, ট্রাক, গাড়ি চালানো যাবে। এই কঠিন কিছু না। আমি একটি হাইড্রোজেন গাড়ি কিনেছি যেটি আমি দিল্লিতে চালাব। কারণ লোকেরা বাইরের ধারণা আপন করতে সময় লাগান।’

বন্ধ করুন