বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > SC on deputy CM: উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ অসাংবিধানিক নয়, মামলার পর্যবেক্ষণে বলল সুপ্রিম কোর্ট

SC on deputy CM: উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ অসাংবিধানিক নয়, মামলার পর্যবেক্ষণে বলল সুপ্রিম কোর্ট

সুপ্রিম কোর্ট (Amit Sharma)

দিল্লি-ভিত্তিক সংগঠন পাবলিক পলিটিক্যাল পার্টির দায়ের করা জনস্বার্থ মামলা খারিজ করে বলে, সংবিধানের অধীনে উপ-মুখ্যমন্ত্রীরা মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য।

উপ-মুখ্যমন্ত্রীর পদটি সংবিধানে সংজ্ঞায়িত নাও হতে পারে তবে ক্ষমতাসীন দলের প্রবীণ নেতাদের বা দলগুলির জোটের কোনও প্রতিনিধি উপ-মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোনও অবৈধতা নেই। এক জনস্বার্থ মামলার পর্যবেক্ষণে সুপ্রিম কোর্ট এমনটা জানিয়েছে। উপ-মুখ্যমন্ত্রীর পদকে অসংবিধানিক বলে দাবি করে মামলা হয় শীর্ষ আদালতে। মামলাটি খারিজ করে দিয়েছে আদালত।

ভারতের প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বাধীন একটি বেঞ্চের মতে, একজন উপ-মুখ্যমন্ত্রী হলেন একজন বিধায়ক এবং একজন মন্ত্রী, যাকে উপ-মুখ্যমন্ত্রী বলা হয় এবং তাই এই প্রথা দ্বারা সাংবিধানেরকে বিধান লঙ্ঘন করা হয় না।

প্রধান বিচারপতি ছাড়াও বিচারপতি জে বি পারদিওয়ালা এবং মনোজ মিশ্রের গঠিত বেঞ্চ বলেছে, 'উপ-মুখ্যমন্ত্রীদের নিয়োগ এমন একটি প্রথা যা কিছু রাজ্যে দল বা দলগুলির জোটের প্রবীণ নেতাদের কিছুটা বেশি গুরুত্ব দেওয়ার জন্য অনুসরণ করা হয়। এটি অসাংবিধানিক নয়।'

দিল্লি-ভিত্তিক সংগঠন পাবলিক পলিটিক্যাল পার্টির দায়ের করা জনস্বার্থ মামলা খারিজ করে বলে, সংবিধানের অধীনে উপ-মুখ্যমন্ত্রীরা মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য।

পড়ুন। হিন্দু আইনে বিয়ে একটি ধর্মীয় বিষয়,'কনট্রাক্ট' নয়! ডিভোর্সের আর্জিতে পুনর্মিলনের পক্ষে সায় কোর্টের

আবেদনকারীর আইনজীবী যুক্তি দিয়ে বলেন, যে রাজ্যগুলি উপ-মুখ্যমন্ত্রী নিয়োগের মাধ্যমে একটি ভুল উদাহরণ স্থাপন করছে। যা সংবিধানের কোনও ভিত্তি ছাড়াই করা হচ্ছে।

কিন্তু বেঞ্চ জবাবে বলে, 'একজন উপ-মুখ্যমন্ত্রী প্রথম এবং সর্বাগ্রে একজন মন্ত্রী। এই পদ কোনও সাংবিধানিক বিধি লঙ্ঘন করেন না। বিশেষ করে যেহেতু তাঁকে বিধায়ক হতে হয়। এমনকি আপনি যদি কাউকে উপ-মুখ্যমন্ত্রী বলেন, তবুও তিনি একজন মন্ত্রী।

আদালত তার আদেশে বলে, '৩২ অনুচ্ছেদের অধীনে দায়ের করা পিটিশনে রাজ্যগুলিতে উপ-মুখ্যমন্ত্রীদের নিয়োগকে চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে। আবেদনকারীর আইনজীবী যুক্তি দেখান যে সংবিধান অনুযায়ী এই ধরনের কোনও পদ নেই। একজন উপ-মুখ্যমন্ত্রী প্রথম এবং সর্বাগ্রে রাজ্য সরকারের একজন মন্ত্রী। উপ-মুখ্যমন্ত্রীর পদবি সাংবিধানিক অবস্থান লঙ্ঘন করে না তাঁকে অবশ্যই বিধানসভায় নির্বাচিত হতে হবে। অতএব, এই আবেদনে বস্তুনিষ্ঠতার অভাব রয়েছে এবং তাই এটি খারিজ করা হল।'

সংবিধানের ১৬৩ (১) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে যে রাজ্যপালকে সহায়তা ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি মন্ত্রী পরিষদ থাকবে। ১৬৪ (১) অনুচ্ছেদে রাজ্যপাল কর্তৃক নিযুক্ত মুখ্যমন্ত্রী এবং মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শে রাজ্যপাল কর্তৃক নিযুক্ত অন্যান্য মন্ত্রীদের নিয়োগ প্রক্রিয়ার রূপরেখা দেওয়া হয়েছে।

ঘরে বাইরে খবর
বন্ধ করুন

Latest News

আরপিএফ নিয়োগের ওই বিজ্ঞাপন পুরো ভুয়ো, খুব সাবধান! ফ্যাক্ট চেক করল PIB BCCI-এর চোখ রাঙানিতে DY Patil T20 Cup-এ প্রত্যাবর্তন করলেও, নিরাশ করলেন ইশান অর্পিতাকে চিনি, তাঁর সঙ্গে আমার যোগাযোগ ব্যবসায়িক, আদালতে দাবি করলেন পার্থ দু বছরের শিশু কন্যাকে ছিঁড়ে খেল কুকুরের দল, এক পশুপ্রেমী ওদের খেতে দিত রোজ… জার্মানির শিল্পীর কণ্ঠে 'অচ্যুতম কেশবম..', মুগ্ধ মোদী দিলেন তাল 'শুধু যোগগুরুই', পতঞ্জলির কোনও পদেই নেই রামদেবের, SC-তে হাওয়া বেগতিক দেখে দাবি ‘‌বাংলা ভিখারি নয়, কাউকে ভিক্ষা করতে হবে না’‌, হকের টাকা নিয়ে তোপ মমতার জেলের ভাতে ‘রুচি নেই’, বিরিয়ানি-চাউমিন চান কোন্নগর শিশুহত্যায় ধৃত শান্তা-পারভিন সব বিপক্ষে চলে যাচ্ছে দেখে এখন শাহজাহানকে গ্রেফতারের কথা বলছে: নিরাপদ সরদার খুন হওয়া গায়ক মুসেওয়ালার মা অন্তঃসত্ত্বা, খবর সামনে আসতেই হত্যার চেষ্টা ঘনিষ্ঠকে

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.