বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > NPS Calculator: মাসে মাত্র ১০,০০০ টাকা জমা দিন, পাবেন মাসিক ১.৫ লাখ টাকা পেনশন, কীভাবে?
সেবি নথিভুক্ত কর এবং বিনিয়োগ বিশেষজ্ঞ জিতেন্দ্র সোলাঙ্কি জানিয়েছেন, এনপিএসে সুদের হার নির্দিষ্ট থাকে না। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য প্রদীপ গৌর/মিন্ট)
সেবি নথিভুক্ত কর এবং বিনিয়োগ বিশেষজ্ঞ জিতেন্দ্র সোলাঙ্কি জানিয়েছেন, এনপিএসে সুদের হার নির্দিষ্ট থাকে না। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য প্রদীপ গৌর/মিন্ট)

NPS Calculator: মাসে মাত্র ১০,০০০ টাকা জমা দিন, পাবেন মাসিক ১.৫ লাখ টাকা পেনশন, কীভাবে?

  • অবসরের পর কীভাবে চলবে? কোথা থেকে এককালীন টাকা পাবেন? নির্দিষ্ট সময় অন্তর টাকা মিলবে? 

অবসরের পর কীভাবে চলবে? কোথা থেকে এককালীন টাকা পাবেন? নির্দিষ্ট সময় অন্তর টাকা মিলবে? যে কোনও ব্যক্তির ক্ষেত্রে সেই বিষয়গুলি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেই দুটি বিষয়েরই সমাধান করবে ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেম (এনপিএস)। যে প্রকল্পে ম্যাচিউরিটির কমপক্ষে ৪০ শতাংশ অর্থ বার্ষিক ভিত্তিতে তুলতে হয়। সর্বাধিক ৬০ শতাংশ অর্থ একলপ্তে তুলতে পারেন বিনিয়োগকারী।

সেবি নথিভুক্ত কর এবং বিনিয়োগ বিশেষজ্ঞ জিতেন্দ্র সোলাঙ্কি জানিয়েছেন, এনপিএসে সুদের হার নির্দিষ্ট থাকে না। কারণ গ্রাহক কী অনুপাতে বিনিয়োগ করছেন, তার উপর সুদের হার নির্ভর করে। নিয়ম মোতাবেক ইক্যুইটিতে নিজেদের সর্বোচ্চ ৭৫ শতাংশ তহবিল বিনিয়োগ করতে পারেন এনপিএস গ্রাহকরা। তবে তিনি ৬০:৪০ অনুপাতে বিনিয়োগের পরামর্শ দিয়েছেন। তাঁর মতে, অ্যানুইটিতে তহবিলের ৪০ শতাংশ বিনিয়োগ করলে বার্ষিক ছ’শতাংশ হারে রিটার্ন পাবেন। 

এনপিসে সুদের হার

সোলাঙ্কি জানিয়েছেন, যদি এনপিএস গ্রাহকরা ৬০:৪০ অনুপাত বিনিয়োগ করেন, তাহলে দীর্ঘকালীন সময় ইক্যুইটি থেকে ১২ শতাংশ রিটার্ন পাবেন। যেহেতু ইক্যুইটিতে ৬০ শতাংশ অর্থ আছে, তাই এনপিএস অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম ৭.২ শতাংশ (১২*০.৬০) রিটার্ন পাওয়া যাবে। বাকি অর্থে রিটার্ন মিলবে ৩.২ শতাংশ (৮*০.৪০)। রিটার্ন মিলবে ৬০:৪০ অনুপাত বজায় থাকলে দীর্ঘকালীন সময় সুদের হাত ১০ শতাংশ থেকে ১০.৪ শতাংশ হতে পারে।

এনপিএস ক্যালকুলেটর অনুযায়ী

কোনও গ্রাহক যদি ৩০ বছর ধরে ৬০:৪০ অনুপাতে মাসিক ১০,০০০ টাকা বিনিয়োগ করেন এবং ৪০ শতাংশ অ্যানুইটি ক্রয়ের সিদ্ধান্ত নেন, তাহলে তিনি অর্থ তোলার সময় ১,৩৬,৭৫,৯৫২ টাকা পাবেন। আর মাসিক পেনশন দাঁড়াবে ৪৫,৫৮৭ টাকা। তবে গ্রাহকরা সেই ১,৩৬,৭৫,৯৫২ টাকা ব্যবহার করলে মাসিক পেনশন ১.৫ লাখ টাকার কাছেও পৌঁছে যেতে পারে।

বন্ধ করুন