ক্রমশই কোভিড হটস্পট হয়ে যাচ্ছে বাংলা। সেখান থেকে প্রতিবেশী রাজ্য ওড়িশার তিন জেলায় ৩০০০ লোক ঢুকেছে গত কয়েক দিনে। তাই কোনও ঝুঁকি না নিয়ে আগামী ৬০ ঘণ্টার জন্য জেলাগুলিকে সম্পূর্ণ সিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ওড়িশা সরকার।

মুখ্যসচিব অসিত ত্রিপাঠি বলেন যে বালাসোর, ভদ্রক ও জাজপুর জেলায় ৬০ ঘণ্টার শাটডাউন চলবে। বৃহস্পতিবার সকাল দশটা থেকে এই শাটডাউন শুরু হয়েছে। এই সময় শুধু অ্যাম্বুলেন্স ও পণ্যবহনকারী গাড়ি এই তিল জেলায় চলতে পারে। এখানে আক্রান্ত ৩৩ জনের প্রাথমিক ও দ্বিতীয় সারির কন্ট্যাক্টদের পরীক্ষা চলবে এই সময়।

অসিতবাবু জানান যে গত পাঁচ দিনে রাজ্যে যে ২৯টি কেস পাওয়া গিয়েছে, তার ২৮টি এই তিন জেলায়। সেই জন্যেই কড়াকড়ি বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

গত কাল থেকে বাংলা লাগোয়া বালাসোর ও ময়ূরভঞ্জ জেলায় বর্ডার সিল করা হয়েছে। ৫৭টি রাস্তা আটকানো হয়েছে। ২৭ প্ল্যাটুন পুলিশও নিযুক্ত করা হয়েছে যারা অ্যাম্বুলেন্স করে আসছিলেন। ভদ্রক ও জাজপুরে করোনা রোগীদের মধ্যে অধিকাংশই ছোটো ট্রাক, ট্রলার, টেম্পো ইত্যাদি করে রাজ্যে ঢুকেছে। শুধু জাজপুরেই, পায়ে হেঁটে ঢুকেছে ৭০০জন।

বৃহস্পতিবার একটি ট্রাক ১১ ব্যক্তিকে নিয়ে বাংলা থেকে ভূবনেশ্বরে যাচ্ছিল। সেটাকে আটকানো হয় ভদ্রকে। কিন্তু পুলিশ আসার আগেই ট্রাকটি চম্পট দেয় সেখান থেকে।

প্রতিদিন ৩০০০ টেস্ট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। বোলাঙ্গির, বালাসোর, বারিপদা, কোরাপুট জেলা ও ওড়িশা বিশ্ববিদ্যালয়তে স্থিত হাসপাতালেও টেস্টিং শুরু হবে।

রাজধানী ভূবনেশ্বরে রাজ্যের মোট ৮৯টির মধ্যে ৪৬টি কেস পাওয়া গিয়েছে। কিন্তু গত ৯ দিনে কোনও নতুন রোগীর খোঁজ মেলেনি সেখানে। মূলত টেস্টিং বাড়িয়ে করোনা রোগীদের চিহ্নিত করা হয়েছে সেখানে। একই ভাবে জেলাগুলিতেও পরীক্ষা বাড়াতে চায় রাজ্য। এই জন্য তিন আইএএস অফিসারকে নিযুক্ত করা হয়েছে।



বন্ধ করুন