বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পুজোর মাসে স্টেশনে মিলবে রান্না করা খাবার, করোনা প্রকোপের প্রথমবার অনুমতি রেলের
পুজোর মাসে স্টেশনে মিলবে রান্না করা খাবার, করোনা প্রকোপের প্রথমবার অনুমতি রেলের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
পুজোর মাসে স্টেশনে মিলবে রান্না করা খাবার, করোনা প্রকোপের প্রথমবার অনুমতি রেলের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

পুজোর মাসে স্টেশনে মিলবে রান্না করা খাবার, করোনা প্রকোপের প্রথমবার অনুমতি রেলের

  • আপাতত দেশে ৩১০ টি যাত্রীবাহী ট্রেন চলছে।

উৎসবের মরশুম শুরুর আগে স্টেশনে রান্না করা খাবার বিক্রির অনুমতি দিল রেল। ইন্ডিয়ান রেলওয়ে কেটারিং অ্যান্ড ট্যুরিজম কর্পোরেশনের (আইআরসিটিসি) নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, এবার থেকে স্টেশনে ফুড প্লাজা ও দোকান থেকে রান্না করা খাবার মিলবে।

করোনাভাইরাস প্রকোপ শুরুর পর ২২ মার্চ থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন পরিষেবা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। পরে ১২ মে থেকে বিশেষ ট্রেন শুরু হলেও স্টেশনে শুধুমাত্র প্যাকেটজাত খাবার বিক্রির অনুমতি দিয়েছিল। আইআরসিটিসির নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত স্টেশনের স্থায়ী দোকান থেকে রান্না করা খাবার বিক্রি করা যাবে। তবে দোকানে বসে খাওয়া যাবে না। সেখান থেকে নিয়ে চলে যেতে হবে।

রেলের সেই সিদ্ধান্তে বড়সড় স্বস্তি পেলেন যাত্রীরা। কারণ ১২ মে দেশজুড়ে ১৫ জোড়া বিশেষ ট্রেন শুরুর পর ১ জুন থেকে ১০০ জোড়া দূরপাল্লার ট্রেন দৌড়াতে শুরু করে। ১২ সেপ্টেম্বর থেকে বাড়তি ৮০ টি ট্রেন শুরু হয়। পরে ২১ সেপ্টেম্বর থেকে ৪০ টি 'ক্লোন ট্রেন' চালু করেছে রেল।  অর্থাৎ আপাতত দেশে ৩১০ টি যাত্রীবাহী ট্রেন চলছে।

তারইমধ্যে গত বৃহস্পতিবার রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যান ভি কে যাদব জানিয়েছেন, আগামিদিনে আরও 'ক্লোন ট্রেন' শুরুর পাশাপাশি উৎসবের মরশুমে অতিরিক্ত ২০০ টি বিশেষ ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। বাড়তি যাত্রীর চাপ সামাল দিতে ১৫ অক্টোবর থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সেই পরিষেবা মিলবে।

বন্ধ করুন