বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দেশজুড়ে গণছুটির ডাক দিলেন স্টেশন মাস্টাররা, বিঘ্নিত হতে পারে রেল পরিষেবা, কবে?
দেশজুড়ে বিঘ্নিত হতে পারে ট্রেন পরিষেবা। (ছবি, সৌজন্যে পিটিআই)

দেশজুড়ে গণছুটির ডাক দিলেন স্টেশন মাস্টাররা, বিঘ্নিত হতে পারে রেল পরিষেবা, কবে?

  • অবিলম্বে স্টেশন মাস্টারদের দাবি নিয়ে তাঁদের সঙ্গে আলোচনায় করুক মন্ত্রক। অল ইন্ডিয়া স্টেশন মাস্টার্স সংগঠন যেভাবে হুঁশিয়ারি দিয়েছে তা যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

আগামী ৩১ মে দেশজুড়ে বিঘ্নিত হতে পারে ট্রেন পরিষেবা। দূরপাল্লার মেল থেকে এক্সপ্রেস চলাচল স্তব্ধ হয়ে যেতে পারে। এমনকী প্রভাব পড়তে পারে শহর–শহরতলির লাইফলাইন লোকাল ট্রেনেও। কারণ মাসের শেষ দিনে কোনও কাজ করবেন না স্টেশন মাস্টাররা। কেন্দ্রের মোদী সরকারকে এমনই হুঁশিয়ারি দিয়েছে স্টেশন মাস্টারদের সর্বভারতীয় সংগঠন।

কেন এমন হুঁশিয়ারি স্টেশন মাস্টারদের?‌ সংগঠন সূত্রে খবর, স্টেশন মাস্টারদের শূন্যপদ রয়েছে। সেখানে নিয়োগ করা হচ্ছে না। ফলে অন্যান্যদের উপর বাড়তি চাপ হচ্ছে কাজের। তাই নিয়োগ–সহ একাধিক দাবিতে আগামী ৩১ মে একদিনের গণছুটি (মাস ক্যাজুয়াল লিভ) নেওয়ার ডাক দিয়েছেন তাঁরা। এই সিদ্ধান্তকে একপ্রকার নজিরবিহীন বলেই মনে করা হচ্ছে।

এখন কী উপায় খুঁজছে রেল?‌ রেল কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, অবিলম্বে স্টেশন মাস্টারদের দাবি নিয়ে তাঁদের সঙ্গে আলোচনায় করুক মন্ত্রক। অল ইন্ডিয়া স্টেশন মাস্টার্স সংগঠন যেভাবে হুঁশিয়ারি দিয়েছে তা যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। এই বিষয়ে সংগঠনের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পি সুনীলকুমার বলেন, ‘আমরা আগামী ৩১ মে মাস ক্যাজুয়াল লিভের নোটিশ পেশ করেছি রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানের কাছে। তাঁকে জানিয়েছি, রেল বোর্ডের কাছে এখনও ১০ দিন সময় আছে। তার মধ্যেই যেন সমস্যার সন্তোষজনক সমাধান বের করা হয়। নাহলে স্টেশন মাস্টাররা গণছুটি নেবে।’

স্টেশন মাস্টারদের দাবি কী?‌ স্টেশন মাস্টারদের দাবি, শূন্যপদে নিয়োগ করতে হবে। কোনওরকম ঊর্ধ্বসীমা ছাড়াই তাঁদের রাত্রিকালীন ভাতার বন্দোবস্ত করতে হবে। দিতে হবে ঝুঁকি–ভাতাও। এই মুহূর্তে সারা দেশে স্টেশন মাস্টারদের ২০ শতাংশেরও বেশি পদ খালি পড়ে আছে। নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি হলেও প্রক্রিয়া পিছিয়ে যাচ্ছে। পর্যাপ্ত কর্মী না থাকায় বেশি চাপ পড়ছে স্টেশন মাস্টারদের উপর।

বন্ধ করুন