বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > খবরে বাড়ছে সাম্প্রদায়িকতার ছোঁয়া,উদ্বেগ প্রকাশ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স

খবরে বাড়ছে সাম্প্রদায়িকতার ছোঁয়া,উদ্বেগ প্রকাশ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির

  • তবলিঘি জামাতের জমায়েত থেকে করোনা ছড়ানোর খবরের বিরোধিতা করে দায়ের করা একটি মামলার শুনানিতে চলছে শীর্ষ আদালতের তরফে।

দেশে সাম্প্রদায়িক খবরের সংখ্যা বৃদ্ধি নিয়ে উদ্বিগ্ন সুপ্রিম কোর্ট। শীর্ষ আদালতের বক্তব্য, সংবাদমাধ্যমের একাংশ সবকিছুর মধ্যেই সাম্প্রদায়িকতা খুঁজে বেরায়। এর জেরে দেশের ভাবমূর্তি ধাক্কা খাচ্ছে বলেও পর্যবেক্ষণে বলে শীর্ষ আদালত। প্রসঙ্গত, তবলিঘি জামাতের জমায়েত থেকে করোনা ছড়ানোর খবরের বিরোধিতা করে দায়ের করা একটি মামলার শুনানিতে এই কথা বলা হয়ে শীর্ষ আদালতের তরফে।

গত বছর দিল্লিতে তবলিঘি জামাতের একটা বিরাট জমায়েত হয়েছিল। পরবর্তীতে অভিযোগ ওঠে, এই জমায়েত থেকেই নাকি গোটা দেশে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে। এ নিয়ে সেই সময় বিতর্কও কম হয়নি। এদিন সেই ঘটনার প্রেক্ষিতেই একটি মামলা শুনানির জন্য উঠেছিল শীর্ষ আদালতে। সেই ঘটনায় সংবাদমাধ্যমের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন প্রধান বিচারপতি এনভি রামানা।

প্রধান বিচারপতি তাঁর পর্যবেক্ষণে বলেন, 'সবকিছুর মধ্যেই একটা সাম্প্রদায়িক সূত্র খুঁজে বের করা হয়। সংবাদমাধ্যমের একাংশ এই কাজ করছে। এটা খুবই খারাপ। ওয়েব পোর্টালগুলি শুধুমাত্র ক্ষমতাবানদের কথাই শোনে। কোনও ভিত্তি ছাড়াই যা খুশি লিখতে পারে তারা। ওয়েব পোর্টালগুলি শুধুমাত্র ক্ষমতাবানদের নিয়েই চিন্তিত থাকে। সাধারণ মানুষকে নিয়ে তাদের কোনও ভাবনা নেই। এটাই আমাদের অভিজ্ঞতা। এতে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে।'

উল্লেখ্য, গত বছর যেভাবে করোনা অতিমারী সংক্রমণের জন্য একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়কে কাঠগড়ায় তোলা হয়েছিল, তাতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন সমাজের নানা স্তরের মানুষ। সুপ্রিম কোর্টে রুজু হওয়া সংশ্লিষ্ট মামলাটিতে এর জন্য সংবাদমাধ্যমের একাংশকেই কাঠগড়ায় তোলা হয়। মামলাকারীর দাবি, এমন খবর পেশের জন্য অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

বন্ধ করুন